ফনেটিক ইউনিজয়
কবিতা
বৃক্ষ হ্রদ ও পাহাড়
মঈনুস সুলতান

বালুকা ও নুড়িপাথরের সয়লাবে নিমগ্ন হ্রদের পাড়ে
কটনউডের দিঘল বৃক্ষ এক- প্রেক্ষাপটে তার বাসন্তি পাহাড়
সনোরা ডেজার্টের প্রান্তিক গুহায় আদিবাসীদের হাড়ে
বিভ্রান্ত পর্যটক খুঁজে জীবাশ্ম- নাবাহো চিত্রকরের আঁকা ষাঁড়।

পত্রালিতে হাওয়ার কম্পন ছুঁয়ে নওল হয়েছে তরুবর
আমি তার অটাম সিগ্ধ সোনালি সহবতে বসি ছায়াতলে
উড়ে যাওয়ার অভিলাষ- উত্তর মেরুতে বাঁধতে চায় ঘর
পরিযায়ী হতে চায় বৃক্ষপুত্র হাওয়াই মেঘের বিবাগী ছলে।

হ্রদটিও পরিকল্পনা করছে- বিমুখ মাছের অনুরাগীরা
জলতলে গড়ে তুলবে সম্পূর্ণ সাবমার্জ এক নগর
স্কুবা ডাইভিংয়ের গিয়ার পরে ডুবুরিরা
তালাশ করবে নাবাহো রাজকুমারের রৌপ্যবাসর।

প্রেক্ষাপটে সটান দাঁড়িয়ে মাউন্ট সান হোয়ান
টিলা বেয়ে উঠে পড়ি তার শিলাদন্ত মিনারে
জগদ্দল পাথরে ছড়ানো ক্যাকটাস অফুরান
বলে- আঁকো আমাকে তুমি
তুলির নিশিডাকে নিয়ে যাও রঙের অভিসারে।

Disconnect