ফনেটিক ইউনিজয়
চাঁপাইনবাবগঞ্জে উন্নয়ন বঞ্চিত রেহাইচর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়
মো. আখতারুজ্জামান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রতিষ্ঠার ৩৭ বছর পেরিয়ে গেলেও তেমন কোনো উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি পৌর এলাকার রেহাইচর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে। এখানে নেই পর্যাপ্ত শ্রেণি কক্ষ, প্রটেকশান ওয়াল। এমনকি পর্যাপ্ত টয়লেটের ব্যবস্থাও নেই। চারিদিকে প্রটেকশান ওয়াল না থাকায় স্কুল চলাকালীন সময় স্কুলের মধ্যদিয়ে বিভিন্ন যানবাহন চলাচল করে। আর স্কুল ছুটি হলে স্কুলের বারান্দাটি পরিণত হয় বিভিন্ন এলাকার মাদকসেবীদের আড্ডায়। প্রায় প্রতিদিন সকালেই স্কুলের বারান্দায় বিভিন্ন ধরনের মাদকের বোতল পড়ে থাকতে দেখা যায়। স্কুলে কর্মরত নাইটগার্ড রাতে অবস্থান করাকালীন সময়ে মাদকসেবীরা তাকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিয়েছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।
রেহাইচর, চাঁন্দলাই, টিকরামপুর ও পাইকড়তলা এলাকার স্থানীয় লোকজনের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ১৯৮০ সালে প্রতিষ্ঠিত হবার পর ১৯৮৫ সালে এমপিওভুক্ত হয় রেহাইচর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। স্কুলটিতে বর্তমানে ২৭৫ জন শিক্ষার্থী পড়াশোনা করে। অথচ তাদের জন্য রয়েছে মাত্র একটি টয়লেট, দুটি ভবনের মধ্যে একটি টিনশেড ভবন ও একটি  দোতলা ভবন।
স্কুলের স্টুডেন্ট ক্যাবিনেটের নির্বাচিত ছাত্রী তামান্না আকতার ও সাহিদা আকতার জানান, ‘আমাদের স্কুলে চারিদিকে কোন প্রটেকশান ওয়াল না থাকায় আমরা সবসময় ঝুঁকি নিয়ে পড়াশোনা করি। আমরা চারবছর ধরে এখানে পড়ছি। কিন্তু চারিদিকে ওয়াল দেওয়ার কাজ হচ্ছে না।’
স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. গোলাম মোর্তজা জানান, ‘১৯৮০ সালে প্রতিষ্ঠিত এ বালিকা বিদ্যালয়টি এখন পর্যন্ত সরকারের অনুদানে তেমন কোন উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। দীর্ঘদিন বিভিন্ন সরকারি অফিস-আদালত, এমনকি নির্বাচিত প্রতিনিধিদের কাছে বারবার গিয়েও কোনো কাজ হয়নি। স্কুলের বাড়তি কোন আয় না থাকায়, স্কুলের পক্ষে কোনো উন্নয়নমূলক কাজ করা সম্ভাব হয়নি।’

Disconnect