ফনেটিক ইউনিজয়
হাঁসের হ্যাচারিতে চার উদ্যোক্তার স্বপ্ন
নওশাদ রানা সানভী, টাঙ্গাইল

চার ব্যক্তির যৌথ উদ্যোগে টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলা ও ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার সীমান্তবর্তী বেতবাড়ি নামক স্থানে বাণিজ্যিকভাবে গড়ে তোলা হয়েছে একটি হাঁসের হ্যাচারি। এটিকে ঘিরেই এখন ওই চার উদ্যোক্তার স্বপ্ন।
এরো চিকস অ্যান্ড হ্যাচারি নামের হাঁসের হ্যাচারিটির পরিচালক মোহাম্মদ রাউজার সাহাদাৎ আলী। সহযোগী হিসেবে আছেন মো. হাবিবুল্লাহ বাহার, ভেটেরিনারি চিকিৎসক নজরুল ইসলাম ও গোলাম হাসান তালুকদার।
হাবিবুল্লাহ বাহার বলেন, মুরগির ফিডের ডিলারশিপ ব্যবসার মাধ্যমে গাজীপুর ফিডসের পরিচালক রাউজার সাহেবের সঙ্গে তাঁর পরিচয় হয়। তিনি সব সময় ভাবতেন, কীভাবে অল্প টাকা বিনিয়োগ করে অর্থনৈতিক মুক্তি লাভ করা যায়। সেই ভাবনা থেকে তিনি বিভিন্ন দেশ ঘুরে এবং হাঁসের ওপর গবেষণা চালিয়ে দেখতে পান, হাঁস পালনের মাধ্যমে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়া সম্ভব। তিনি উন্নত জাতের এক হাজার পিকিং ব্রয়লার হাঁস এবং জিনডিং ও খাকি ক্যাম্বেল জাতের চার হাজার পেরেন্টস হাঁস দেশে নিয়ে আসেন। পেরেন্টস হাঁস থেকে প্রাপ্ত ডিম থেকেই বর্তমানে হ্যাচারিতে বাচ্চা উৎপাদন করা হচ্ছে। সপ্তাহে এক দিন রোববার ঠিক করা হয়েছে বাচ্চা উৎপাদনের দিন। আর এই এক দিনে প্রায় ১৬ হাজার বাচ্চা উৎপাদন হয়।
হাবিবুল্লাহ বলেন, এক হাজার মুরগির খামার করতে প্রায় সাত থেকে আট লাখ টাকার প্রয়োজন, যা একজন গ্রামের সাধারণ মানুষের পক্ষে সহজলভ্য নয়। অন্যদিকে ১০০ হাঁসের খামার করতে টাকা লাগে মাত্র ৭০ থেকে ৮০ হাজার। স্বল্প আয়ের মানুষের পক্ষে এটুকু বিনিয়োগ করা সম্ভব।
হাঁসের রোগবালাই মুরগির তুলনায় অনেক কম। তাই হাঁসের খামার করতে অতিরিক্ত খরচ হয় না। অল্প পরিসরে এ খামার করা যায়। হাঁসের সঙ্গে সমন্বিত মাছ চাষ করতে পারলে একজন খামারি অনেক বেশি লাভবান হবেন বলে জানান, খামারের আরেক অংশীদার ডা. নজরুল ইসলাম।
এক দিনের প্রতিটা ব্রয়লার হাঁসের বাচ্চার দাম ধরা হচ্ছে ৪৫ টাকা এবং লেয়ার জাতের বাচ্চার দাম ৩৫ টাকা। ব্রয়লারের ক্ষেত্রে সঠিক পরিচর্চায় ৪০ দিনে প্রতিটি হাঁসের ওজন ৪ থেকে ৫ কেজি হয়ে থাকে। যার বাজারমূল্য ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা। লেয়ারের ক্ষেত্রে মুরগির মতোই ৬ মাস পালনে ডিম আসতে শুরু করে এবং একটানা ২ থেকে আড়াই বছর ডিম দিয়ে থাকে। ডিমের উৎপাদনও আসে বেশ ভালো। তুলনামূলকভাবে মুরগির চেয়ে হাঁসের ডিমের বাজারমূল্য বেশি। ইউরোপের দেশগুলোয় ব্রয়লার হাঁসের মাংস ও লেয়ারের ডিমের বেশ চাহিদা আছে বলে জানান হাবিবুল্লাহ বাহার। হ্যাচারির পাশাপাশি এ উদ্যোক্তাদের রয়েছে নিজস্ব ফিড মিল। ডিলারের মাধ্যমে অন্য খামারিদের কাছে এ ফিড বিক্রয় করা হয়।
হাঁসের হ্যাচারিকে কেন্দ্র করে ওই চার উদ্যোক্তার রয়েছে অনেক বড় স্বপ্ন। শুধু ঘাটাইল বা ফুলবাড়িয়া নয়, হাঁসের খামার করে একদিন সারা দেশের প্রান্তিক মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তি লাভ হবে বলে আশা করছেন এ উদ্যোক্তারা।

Disconnect