ফনেটিক ইউনিজয়
কবরস্থান থেকে ৬ মাসে তিন লাশ চুরি
রহিম রেজা, ঝালকাঠি

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার কুশঙ্গল ইউনিয়নে কবর থেকে গত ছয় মাসে তিনটি লাশ চুরি হয়েছে। রাতের অন্ধকারে একধরনের ওষুধ ব্যবহার করে লাশের মাংস ছাড়িয়ে কঙ্কালগুলো নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। এ নিয়ে আতঙ্কে আছে স্থানীয় বাসিন্দারা। ছয় মাস আগে কুশঙ্গল ইউনিয়নের জামুড়া গ্রামের মুজাহার হাওলাদারকে মৃত্যুর পর পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছিল। কিন্তু দাফনের ২২ দিনের মাথায় তাঁর লাশ কবর থেকে চুরি হয়। সকালে কবরে লাশের মাংস পড়ে থাকতে দেখেন স্বজনরা। একইভাবে ইউনিয়নের মাদারঘোনা গ্রামের বেলাতুন্নেছা বেগম ও লিয়াকত আলী খানের লাশও চুরি হয়ে যায়।
স্থানীয়রা জানান, এলাকায় অনেকেই লাশ দাফনের পর রীতিমতো পাহারা দেওয়া শুরু করেছেন। এ বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসনকে উদ্যোগ নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। মুজাহার হাওলাদারের ছেলে মাসুম হাওলাদার জানান, বাড়ির পাশেই তাঁর বাবাকে দাফন করা হয়েছিল। কিন্তু দাফনের ২২ দিন পর লাশ চুরি হয়ে যায়। গ্রামের সবার মাঝে এখন আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে কুশঙ্গল ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন বলেন, তিনটি লাশ চুরির বিষয়ে তিনি অভিযোগ পেয়েছেন। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। নলছিটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম বলেন, লাশ চুরির বিষয়ে তাঁর কাছে কেউ এখনো অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Disconnect