ফনেটিক ইউনিজয়
ঐতিহ্যবাহী কর্ণফুলী ও হালদা নদীকে রক্ষা করতে হবে
ইমরান সোহেল, চট্টগ্রাম

সম্প্রতি চট্টগ্রাম নগরের মেরিট বাংলাদেশ স্কুল অ্যান্ড কলেজের মিলনায়তনে বাংলাদেশ পরিবেশ উন্নয়ন সোসাইটির (বাপউস) আয়োজনে ‘বিপন্ন পরিবেশকে রক্ষা করে দেশ উন্নয়নে আমাদের করণীয়’ শীর্ষক মুক্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের চেয়ারম্যান এ কে এম আবু ইউসুফের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন মেরন সান স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ড. মোহাম্মদ সানাউল্লাহ। উদ্বোধন করেন বিশিষ্ট সমাজকর্মী ও রাজনীতিবিদ শফিকুল ইসলাম রাহী।
প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নটর ডেম স্কুল অ্যান্ড কলেজের পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ হোসেন মুরাদ।
বক্তারা বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বদলে যাচ্ছে প্রকৃতির রং। তাতে প্রকৃতির বৈরী আচরণ ক্রমেই বাড়ছে। এই বার্তা পরিবেশের জন্য অশুভ। প্রকৃতির বৈরিতার ফলে দুর্ভোগ দুর্গতির শেষ নেই। বিষয়টি আমলে নিয়ে উত্তরণ ঘটাতে হবে। পরিবেশ বিপর্যয় থেকে বাঁচতে প্রয়োজন বিপন্ন পরিবেশের ব্যাপারে আওয়াজ তোলা। বিশ্ববিবেককে জাগ্রত করা। বর্তমানে যেভাবে পাহাড় করা হচ্ছে, গাছ কেটে বন উজাড় করা হচ্ছে ও নদী দূষণ করা হচ্ছে, তাতে ধ্বংস হচ্চে পরিবেশের ভারসাম্য। নানা কারণে দূষণ হচ্ছে কর্ণফুলী নদী। আমাদের উচিত জনসচেতনতা সৃষ্টি করে নদী দূষণকে রক্ষা করা। পাহাড় ও গাছ কাটা বন্ধ করা। এই বিষয়ে সোচ্চার না হলে সামগ্রিক উন্নয়ন ব্যাহত হবে। সভায় বক্তারা বলেন, যেকোনো মূল্যে চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী কর্ণফুলী নদী, পৃথিবীর বিখ্যাত মিঠা পানির নদী হালদাকে দূষণমুক্ত করতে হবে। চট্টগ্রামের আর কোনো পাহাড় যেন ধ্বংস না হয়, সে ব্যাপারে প্রশাসনকে উদ্যোগ নিতে হবে।
বিশেষ অতিথি হিসেবে আলোচনায় অংশ নেন ইসলামী ব্যাংকের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এম ওসমান গনি, বাবু দুলাল কান্তি বড়–য়া, সোহেল মুহাম্মদ ফখরুদ্দীন, অধ্যক্ষ ভদন্ত দীপানন্দ স্থবির, ডা. জামাল উদ্দিন, এইচএমএ মুবিন সিকদার, অধ্যক্ষ মুহাম্মদ ইউনুছ, মোহাম্মদ সেলিম, লায়ন আবু তাহের, শহিদুল ইসলাম চৌধুরী, এস এম শাহনেওয়াজ আলী মির্জা, এস এম ওসমান, সাংবাদিক সৈয়দ শিবলী ছাদেক, কুতুব উদ্দিন, অনুতোষ দত্ত, মো. নেজাম উদ্দিন প্রমুখ।

Disconnect