ফনেটিক ইউনিজয়
গুরুদাসপুরে লক্ষাধিক মানুষের ঝুঁকিপূর্ণ চলাচল
তাপস কুমার, নাটোর

দেশের বৃহত্তম বিল চলনবিলের প্রাণকেন্দ্র নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার সাবগাড়ি পয়েন্টে একটি সেতুর অভাবে ভাঙা বাঁশের সাকো দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানুষ নদী পার হচ্ছে। উপজেলার বিয়াঘাট ইউনিয়নের সাবগাড়ি বাজার-সংলগ্ন ওই সাঁকোটি ওপার সাবগাড়ি এলাকার সাথে সংযুক্ত। প্রতিদিন  স্থানীয় লোকজন, হাজারো শিশু-কিশোর, শিক্ষার্থী, বহিরাগতসহ ৩০ গ্রামের প্রায় লক্ষাধিক মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ওই বাঁশের সাঁকোতে পারাপার হচ্ছে।
সরেজমিনে দেখা গেছে, সাবগাড়ি বিলহারিবাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের হাজারো শিশু-কিশোর, শিক্ষার্থী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পার হচ্ছে ওই ভাঙা সাঁকো দিয়ে। একটি সেতুর অভাবে ভোগান্তির শিকার মানুষগুলোর বিচ্ছিন্ন যোগাযোগব্যবস্থার কারণে বিফলে যাচ্ছে ওই এলাকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড।
এ প্রসঙ্গে স্থানীয় ডা. আশরাফুল ইসলাম বলেন, সাবগাড়ি বাজার-সংলগ্ন নদীতে একটি সেতু অত্যন্ত জরুরি হয়ে পড়েছে। কারণ, ওপার সাবগাড়ির খেটে খাওয়া মানুষগুলো তাঁদের জমির ফসল পারাপার নিয়ে বিপাকে পড়েছেন। বিশেষ করে অসুস্থ রোগীদের নিয়ে ওই বাঁশের সাঁকো দিয়ে পারাপার হওয়া যায় না। তাই এখানে একটি সেতু খুবই প্রয়োজন। বিষয়টি নিয়ে উচ্চ পর্যায়ে জানানো হলেও এখন পর্যন্ত কোনো সুরাহা হয়নি।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নদীর পানি কমতে থাকায় খেয়াঘাটের নৌকাটি অচল হয়ে গেছে। তাই গ্রামবাসীর সহযোগিতায় বাঁশের সাঁকোটি নির্মাণ করা হয়। সেখানকার খেয়াঘাটের মাঝি খোকন ওই বাঁশের সাঁকো দেখাশোনা ও সংস্কারের দায়িত্বে আছেন। গ্রামবাসীর জমির ধান ও টাকা নিয়ে সাঁকোতে মানুষ পারাপার করে বর্তমানে জীবিকা নির্বাহ করছেন তিনি।

Disconnect