ফনেটিক ইউনিজয়
সোনামসজিদে চালু হয়নি পর্যটন মোটেল
আখতারুজ্জামান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

বাংলার পুরাতন রাজধানী গৌড়ের সোনামসজিদে নির্মিত ক্ষতিগ্রস্ত অত্যাধুনিক পর্যটন মোটেলটি অর্থের অভাবে সংস্কার করা যায়নি। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ২৮ ফেব্রয়ারি জামায়াত নেতা দেলোয়ার হোসাইন সাঈদীর ফাঁসির রায় ঘোষণার পর জামায়াত শিবির ও তাদের সমর্থকেরা নবনির্মিত এ মোটেলে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুর চালিয়ে ব্যাপক ক্ষতিসাধন করে। কিন্তু অর্থ বরাদ্দ না পাওয়ায় আজও পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে নজরকাড়া এ পর্যটন মোটেলটি। পরে জেলাবাসীর দাবির পরিপ্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই মোটেলটি চালু করার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়।
এ ব্যাপারে  জেলা প্রশাসন মো. মাহমুদুল হাসান জানান, পর্যটন মোটেলটি সংস্কারের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত আছে। অর্থ বরাদ্দ পেলেই কাজ শুরু করা হবে। উল্লেখ্য, বর্তমান সরকার ক্ষমতা আসার পর গৌড়ের পিরোজপুর মৌজায় এক একর জমি পর্যটন করপোরেশনের নামে অধিগ্রহণ করে। ২০১০-১১ সালে পর্যটন শিল্প বিকাশের জন্য সোনামসজিদে প্রায় সাড়ে পাঁচ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। তিনতলাবিশিষ্ট এই মোটেলে নির্মাণ করা হয় ১৮টি ভিআইপি রুম, ১২টি অভ্যর্থনা কক্ষ, একটি ক্যানটিন, একটি কিচেন ও একটি সাব-স্টেশন। এ ছাড়া রয়েছে অফিস ও গাড়ি পার্কিং এরিয়া।
সোনামসজিদ বন্দর দিয়ে ভারতে যাতায়াত করা যায়। ফলে পর্যটন মোটেলটি চালু হলে এলাকায় পর্যটনশিল্পের বিকাশ ঘটবে, সরকার প্রচুর রাজস্ব পাবে।

Disconnect