ফনেটিক ইউনিজয়
ইরি-বোরো চাষ ব্যাহতের আশংকা
নূর আলম চৌধুরী, লক্ষ্মীপুর

লক্ষ্মীপুরের সদর উপজেলার মধ্য চর রমনী মোহন এলাকায় আলিফ সেচ প্রকল্প বন্ধ থাকায় ইরি-বোরো ধান চাষাবাদ করতে পারছেন না শত শত কৃষক। এতে ধার-দেনা করে জমি বন্ধক নেওয়া এসব কৃষক বিপাকে পড়েছেন। খোরশেদ আলম নামক এক ব্যক্তির মামলায় আদালত স্থিতি অবস্থা বজায় রাখার নির্দেশ দেয়। এ সিদ্ধান্তে চাষাবাদ ব্যাহত হচ্ছে বলে অভিযোগ এনে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন চাষীরা। এদিকে কৃষকরা যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হন, এ বিষয়ে খুব দ্রুত প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান, বিএডিসি কর্মকর্তা।
জানা যায়, দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে আলিফ সেচ প্রকল্প এলাকার প্রায় ২০০ শত একর জমিতে পানি সরবরাহ করছে। সম্প্রতি ওই প্রকল্পটিকে বিএডিসি কর্তৃক সরকারিভাবে ভূগর্ভস্থ ভারি পাইপলাইন নির্মাণের জন্য সিদ্ধান্ত নিয়ে কার্যাদেশ জারি করে। এই অবস্থায় ওই ব্যক্তি তার জমির উপর দিয়ে সেচ প্রকল্প চালু না করতে আদালতের শরণাপন্ন হন। আদালত স্থিতি অবস্থা বজায় রাখার নির্দেশনা দেন। এ কারণে ওই প্রকল্পটির কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। অন্যদিকে সম্প্রতি আদলতের আদেশ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন কৃষকরা। ভুক্তভোগী কৃষকরা বলেন, এখন জমিতে চাষাবাদ করতে না পারলে চরম ক্ষতিগ্রস্ত হতে হবে আমাদেরকে।  
বিএডিসি’র প্রকৌশলী কাজী মো. আবুল কালাম বলেন, কৃষকরা যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হন তা নিয়ে প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে।

Disconnect