ফনেটিক ইউনিজয়
ভুয়া প্রতিবেদন দিচ্ছে ডায়াগনস্টিক সেন্টার
রহিম রেজা, ঝালকাঠি

ঝালকাঠির রাজাপুরের মেডিকেল মোড় এলাকার মমতাজ ও নিউ ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টার দুটির বিরুদ্ধে টেকনোলজিস্টের স্বাক্ষর ও সিল ব্যবহার করে রোগীদের ভুয়া প্রতিবেদন দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টার দুটিতে  আগে কর্মরত টেকনোলজিস্ট নাজমুল ইসলামের অনুপস্থিতিতে তার স্বাক্ষর ও সিল ব্যবহার করে গত ৩১ মার্চ থেকে পরবর্তী চারদিন ধরে বিভিন্ন রোগীকে নানা টেস্টের ভুয়া রিপোর্ট দিয়েছে। এ ঘটনায় টেকনোলজিস্ট নাজমুল ইসলাম ইউএনও আফরোজা বেগম পারুলের কাছে প্রমাণসহ মৌখিক অভিযোগ করেছেন। এর আগে একই ঘটনায় রাজাপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।
মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নাজমুল ইসলাম জানান, তিনি রাজাপুরের একই মালিকের ওই দুটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ২০১৬ সাল থেকে চাকরি করে আসছেন। বিভিন্ন অনিয়ম ও মেশিনের ত্রুটির কারণে তিনি গত ৩১ মার্চ চাকরি ছেড়ে দেন। কিন্তু ১ এপ্রিল থেকে ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টারের চার শেয়ার মালিকের মধ্যে এমদাদুল হক চান ও নজরুল ইসলাম অল্ট্রাসোগ্রাম ও এক্স-রেসহ বিভিন্ন ভুয়া রিপোর্ট আমার নামের জাল সিল ও স্বাক্ষর দিয়ে রোগীকে দিচ্ছেন। এ বিষয়ে ডায়াগনস্টিক সেন্টারের অংশীদার মালিক এমদাদুল হক চান এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তাদের নতুন টেকনোলজিস্ট নিয়োগ দেয়া হয়েছে। নতুন যোগদান করায় তার সিল ছিল না বিদায় নাজমুলের সিল ব্যবহার করা হয়েছে।
রাজাপুর থানার ওসি শামসুল আরেফিন জানান, অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ বিষয়ে ইউএনও আফরোজা বেগম পারুল জানান, অভিযোগের সত্যতা যাচাই করে ভোক্তা অধিকার আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Disconnect