ফনেটিক ইউনিজয়
ভোটার কার্ডে বয়স বাড়িয়ে ভাতা প্রদানের অভিযোগ
এসকে সাহেদ, লালমনিরহাট

ভোটার আইডি কার্ডে বয়স বাড়িয়ে অভিনব কায়দায় বয়স্ক ভাতার কার্ড প্রদানের অভিযোগ উঠেছে। আর জাল-জালিয়াতির সাথে জড়িত রয়েছে খোদ ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যরা। সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাচন অফিসের তদন্তে এমন তথ্য বেরিয়ে এসেছে।
অভিযোগে জানা যায়, জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার ৪ নং দলগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কর্তৃক গত গত ১৯ এপ্রিল ৪০২ জনকে বয়ষ্ক ভাতা প্রদানের জন্য একটি তালিকা উপজেলা সমাজ সেবা কার্যালয়ে দাখিল করা হয়। ওই তালিকা যাচাই করার জন্য উপজেলা নির্বাচন অফিসে প্রেরণ করা হলে ৬০টি আইডি কার্ডে বয়সের অসঙ্গতি ধরা পড়ে।
বয়স্ক ভাতা প্রদানের ক্ষেত্রে নিয়ম হলো পুরুষের বয়স ৬৫ বছর ও মহিলার বয়স ৬২ বছর হতে হবে। এছাড়া একই তালিকায় ভিন্ন দুজন ব্যক্তির নামে একই নম্বরের কার্ড পাওয়া গেছে।
এছাড়া জোনাব আলী ও ইব্রাহিম আলী খান নামে দুজন সরকার প্রদত্ত ভাতাভোগী মুক্তিযোদ্ধারাও বয়স বাড়িয়ে বয়স্ক ভাতার তালিকায় নাম  দেয়া হয়েছে।
এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান খ ম শফিকুল আলম বলেন, ‘এমন ত্রুটি হতেই পারে।  ত্রুটিপূর্ণ তালিকা সমাজ সেবা অফিসারকে বলে বাতিল করা হবে।’    
উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মো. আবু সুফিয়ান বলেন  ‘ভোটার আইডি কার্ড জালিয়াতি একটি মারাত্মক অপরাধ। গত বছর ওই ইউনিয়নে বয়স জালিয়াতির অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ হওয়ায় পাঁচটি বয়স্ক ভাতার কার্ড বাতিল করা হয়েছিল। তবে তার কোনোরকম শাস্তিমূলক ব্যবস্থা না নেয়ার কারণে এবারও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটেছে।

Disconnect