ফনেটিক ইউনিজয়
কোটি টাকার উৎকোচ বাণিজ্য
বিলাস দাস, পটুয়াখালী

পটুয়াখালীতে গ্রামীণ জনপদের ঘরে ঘরে পল্লী বিদ্যুৎ সংযোগে গ্রাহকদের কাছ থেকে দফায় দফায় উৎকোচ নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি এলাকা পরিচালক থেকে শুরু করে জেলা-উপজেলা পর্যায়ের পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারী, জনপ্রতিনিধিসহ বিশাল একটি চক্র এ উৎকোচ বাণিজ্যের সাথে জড়িত। গত কয়েক দিনের অনুসন্ধানে এমন তথ্য বেরিয়ে এসেছে। উৎকোচ উত্তোলন ছাড়াও গ্রাহকদের দিয়ে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানগুলো শ্রমিকের কাজ করাচ্ছেন এমন অভিযোগ একাধিক গ্রাহকের।
সদর উপজেলার মধ্য মৌকরণ এলাকার একাধিক গ্রাহক অভিযোগ করে বলেন, বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার জন্য অফিসের খরচ বাবদ তাদের কাছ থেকে দুই দফায় গ্রাহকপ্রতি ৫-৬ হাজার টাকা নিয়েছে। এছাড়া তাদের কাছ থেকে ঠিকাদারের লোকজন শ্রমিকের খাওয়া-থাকা বাবদ প্রতি গ্রাহকের কাছ নগদ ২০০ টাকা ও দুই কেজি করে চাল উত্তোলন করেছে। কোনো গ্রাহক এ বিষয়ে আপত্তি জানালে বিদ্যুৎ সংযোগের তালিকা থেকে তার নাম কেটে দেয়ার ভয় দেখানো হয়।
পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি সূত্রে জানা গেছে, পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুতের আওতায় জেলায় বর্তমানে আনুমানিক ১ লাখ ৪৫ হাজার ৫৪৪ জন গ্রাহক রয়েছে। এর মধ্য ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে ২০১৭ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত আনুমানিক ৭৯ হাজার ৩৪টি নতুন সংযোগ দেয়া হয়েছে। সে অনুযায়ী গ্রাহকপ্রতি গড়ানুপাতে ৫ হাজার টাকা করে উৎকোচ নেয়া হলে ৭৯ হাজার ৩৪ জন গ্রাহকের কাছ থেকে প্রায় ৪০ কোটি টাকা উঠিয়েছে এ চক্রটি।  
পটুয়াখালী জেলা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার মনোজ কুমার বিশ্বাস জানান, সদস্য ফি মাত্র ৫০ ও মিটার বাবদ ৪৫০ টাকা নির্ধারিত রয়েছে। এছাড়া সরকার গ্রাহকের কাছ থেকে কোনো অর্থ নিচ্ছে না। মাঠপর্যায়ে একটি চক্র মিথ্যা কথা বলে গ্রাহকদের কাছ থেকে টাকা ওঠাচ্ছে। এমন অভিযোগ আমাদের কাছে এসেছে। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে এবং চক্রটির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Disconnect