ফনেটিক ইউনিজয়
মাদক নির্মূলে বাধা পুলিশ!
ফেরদৌস সিদ্দিকী, রাজশাহী

দেশের অন্যতম মাদক ট্রানজিট রাজশাহী। পাশের দেশ ভারত থেকে সীমান্ত পেরিয়ে প্রতিদিনই ঢুকছে কোটি টাকার মাদক। মাঝে মধ্যে দু-একটি মাদকের চালান আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী আটকালেও থেমে নেই মাদকপ্রবাহ। অভিযোগ রয়েছে, কতিপয় সদস্যের মাদক সম্পৃক্ততায় চেষ্টা করেও মাদক নিয়ন্ত্রণে আনতে পারছে না পুলিশ।
অভিযোগ রয়েছে, এখানকার বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য মাদকসেবী। এদের কেউ কেউ সরাসরি মাদক ব্যবসায় জড়িত। আবার কেউ কেউ মাদক ব্যবসায়ীদের কারবার চালিয়ে যেতে নানাভাবে সহায়তা দেন। কারও কারও বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ীদের জিম্মি করে অর্থ আদায়ের অভিযোগ রয়েছে। এ তালিকায় রয়েছেন পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের সদস্য।
রাজশাহী জেলা পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, ২০১২-১৭ পর্যন্ত এ কবছর জেলা পুলিশের ৯২৮ সদস্য অপরাধে জড়িয়েছেন। এর মধ্যে ৫৪ জনকে গুরুদ- দেয়া হয়েছে। মাদক সম্পৃক্ততা, উৎকোচ গ্রহণ, দায়িত্বে অবহেলা, এমনকি পারিবারিক বিষয়ে শাস্তির মুখোমুখি হয়েছেন এরা। শাস্তি হিসেবে ব্ল্যাক মার্ক, ইনক্রিমেন্ট স্থগিত, পদাবনতি ও বেতন কর্তন করা হয়েছে। এছাড়া চাকরিচ্যুত করা হয়েছে দুই অভিযুক্তকে।
একই সময় গুরুদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছেন নগর পুলিশের ৭০ সদস্য। এর মধ্যে মাদক সম্পৃক্ততায় অভিযুক্ত হয়েছে তিনজন। বাকিরা অভিযুক্ত হয়েছেন উৎকোচ গ্রহণ ও দায়িত্বে অবহেলাসহ নানা অভিযোগে।
এ বিষয়ে সিনিয়র সহকারী কমিশনার ইফতেখায়ের আলম বলেন, মাদক ইস্যুতে সব ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি পুলিশের। কেবল মাদক ব্যবসায়ী নয়, যেসব পুলিশ সদস্য মাদকের সাথে জড়িয়েছেন, তাদের বিরুদ্ধেও কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

Disconnect