ফনেটিক ইউনিজয়
দরপত্রে সাড়া দিচ্ছেন না ঠিকাদার
সাজেদ রহমান, যশোর

তিন মাস ধরে ২৯টি অবকাঠামো নির্মাণকাজে বারবার দরপত্র আহ্বান করেও সাড়া পাচ্ছে না এলজিইডি যশোর অফিস। এ কারণে ৩০ কোটি ২৭ লাখ ৬৫ হাজার টাকার নির্মাণকাজ আটকে গেছে। এতে বিপাকে পড়েছে সরকারি এ প্রতিষ্ঠান। পাশাপাশি রাস্তা, ব্রিজ-কালভার্ট নির্মাণকাজ আটকে পড়ায় ভোগান্তি পিছু ছাড়ছে না এলাকাবাসীর।
যশোর এলজিইডি সূত্রে জানা গেছে, জেলার আটটি উপজেলায় তাদের মোট রাস্তা রয়েছে ৯ হাজার ২৪১ কিলোমিটার। এর মধ্যে কাঁচা সড়ক রয়েছে ৬ হাজার ৬৬৪ কিলোমিটার। এসব কাঁচা সড়ক সংস্কারের জন্য তারা একাধিকবার দরপত্র আহ্বান করলেও দরপত্রের সাথে নির্মাণসামগ্রীর বাজারদর বেশি থাকায় লোকসানের আশঙ্কায় ঠিকাদাররা কাজে অংশ নেয়া থেকে বিরত রয়েছে।
যশোর ঠিকাদার সমিতির সভাপতি লুৎফর রহমান জানান, বর্তমানে বাজারে ইটের গাড়ি প্রতি মূল্য ১৮ হাজার টাকা, সেখানে এলজিইডি দিচ্ছে ১৬ হাজার টাকা। পাথরের দাম বাজারে ১৮০ টাকা সেফটির স্থলে এলজিইডি দিচ্ছে ১৩৫ টাকা ও বিটুমিনের দাম ৯ হাজার টাকা সেফটি হলেও এলজিইডি দরপত্রে দিচ্ছে সাড়ে ৭ হাজার টাকা। এতে কাজে অংশ নিলে ঠিকাদারদের পুঁজি বলে কিছু থাকবে না। এ কারণে আমরা এলজিইডির দরপত্রে অংশ নেয়া থেকে বিরত রয়েছি।
এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মঞ্জুরুল আলম সিদ্দিকী বলেন, কাজের দরপত্রে কম রেট থাকার অভিযোগে ঠিকাদাররা তিন মাস ধরে কাজে অংশ নিচ্ছে না। আশা করি, আগামী বাজেটের পর সব ঠিক হয়ে যাবে।

Disconnect