ফনেটিক ইউনিজয়
বয়স্ক ভাতা পাননি মুক্তিযোদ্ধা
শাহাদাত হোসেন তৌহিদ, ফেনী

১৩৬ বছরের বৃদ্ধ নূর আহাম্মদ। ভাষা আন্দোলন ও মহান মুক্তিযুদ্ধে এলাকার যুবকদের সংগঠিত করে সক্রিয়ভাবে আন্দোলন-সংগ্রামে অংশগ্রহণ করেন। মুক্তিযুদ্ধের পরবর্তী সময়ে সনদ গ্রহণ না করায় মিলছে না ভাতা, এমনকি বয়স্ক ভাতা থেকেও বঞ্চিত হয়েছেন তিনি। শেষ জীবনে সাহসী এ সৈনিক অনেকটাই অসহায় জীবনযাপন করছেন।
নূর আহাম্মদ ১৮৮২ সালের ১১ জানুয়ারি ছাগলনাইয়া উপজেলার মহামায়া ইউনিয়নের সত্যনগর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। পরিবারের আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে লেখাপড়ায় বেশি দূর এগোতে পারেননি। ভারত, পাকিস্তান ও বাংলাদেশের শতবছরের ইতিহাস বুকে নিয়ে আজও বেঁচে আছেন তিনি। ১৯১১ সালের বঙ্গভঙ্গ আন্দোলনের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। স্থানীয়রা জানায়, নূর মিয়া (নূর আহাম্মদ) অত্যন্ত শান্ত স্বভাবের মানুষ। কারোর সঙ্গে কখনও ঝগড়া-বিবাদ হয়নি। মানুষকে সবসময় ভালো কাজের জন্য পরামর্শ দেন। এক ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে অতি কষ্টে জীবন অতিবাহিত করেছেন বছরের পর বছর। নূর মিয়া বলেন, যুদ্ধ চলাকালে গ্রামের অনেকে ভারতে আশ্রয় নিলেও আমি গ্রাম ছেড়ে কোথাও যাইনি। স্বাধীনতা যুদ্ধে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর কবল থেকে দেশকে মুক্ত করতে যুদ্ধে যাই।
স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা আবুল বশর বলেন, তিনি অন্যের জমি বর্গা নিয়ে চাষ করেই সংসার ও ছেলে মেয়ের পড়াশোনার খরচ চালাতেন। তিনি যেকোনো আন্দোলন-সংগ্রামের ডাক এলেই অংশগ্রহণ করার জন্য উঠে পড়ে লাগতেন। এ বিষয়ে ছাগলনাইয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মেজবাউল হায়দার সোহেল জানান, বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। তিনি যাতে অল্প সময়ের মধ্যে বয়স্ক ভাতা পান, সে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর মুক্তিযোদ্ধা সনদের জন্য তিনি আবেদন করলে তাকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।

Disconnect