ফনেটিক ইউনিজয়
কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ
জিকরুল হক, উত্তরাঞ্চল প্রতিনিধি

সৈয়দপুরে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ বাস্তবায়ন কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে হরিলুটের অভিযোগ মিলেছে। ভুয়া ব্যক্তির নামে সুবিধাভোগীর তালিকা করা হয়েছে। ঘরের খুঁটি নির্মাণে অনিয়ম, দরজা-জানালা নির্মাণেও অসার কাঠ ব্যবহার করা হচ্ছে। ঘরের ১০ ইঞ্চি চওড়া ও এক ফুট উচ্চতার ভিত্তি দিতে ৫১০টি ইটের প্রয়োজন থাকলেও ইট দেয়া হচ্ছে ৪৮০টি। পোর্টল্যান্ড সিমেন্টের বদলে ফ্রেশ সিমেন্ট ব্যবহার করা হচ্ছে।
সরেজমিনে দেখা যায়, খুঁটি নির্মাণে ব্যবহার করা হয়েছে নিম্নমানের রড। এক ভাগ সিমেন্ট, তিন ভাগ বালি ও ছয় ভাগ খোয়ার পরিবর্তে আট ভাগ বালি ও আট ভাগ খোয়া ব্যবহার করা হচ্ছে খুঁটি তৈরিতে। মিক্সচার মেশিনের পরিবর্তে নির্মাণ উপকরণ মেশানো হচ্ছে হাত ও কোদাল দিয়ে।ওইসব তৈরি খুঁটি ঠিকভাবে শুকানোর আগেই তা সুবিধাভোগীদের সরবরাহ করা হচ্ছে।
বাঙালিপুর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের বারাইশালপাড়া গ্রামের শেখপাড়ায় গিয়ে দেখা যায়, সুবিধাভোগীর তালিকায় চারজনের নাম থাকলেও মাত্র একজনের হদিস মেলে। এ ওয়ার্ডের শেখপাড়ায় প্রকল্পের তালিকায় নাম রয়েছে হামিদুল হক, আজগার আলী, মোতালেব ও আইয়ুব আলীর। এদের মধ্যে আইয়ুব আলী ছাড়া অন্যদের কোনো অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। একই অবস্থা বিরাজ করছে উপজেলার অন্য ইউনিয়নগুলোতেও।
এ বিষয়ে ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম বলেন, ভুলক্রমে অন্য পাড়ার সুবিধাভোগীর নাম শেখপাড়ার তালিকায় স্থান পেয়েছে। প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগ বিষয়ে জানতে চাইলে সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বজলুর রশীদ মুঠোফোনে জানান, কোনো অনিয়ম নজরে এলেই ব্যবস্থা নেয়া হবে। অনিয়ম সম্পর্কে প্রকল্প পরিচালক আবুল কালাম সামসুদ্দিন মুঠোফোনে বলেন, এসব বিষয়ে মনিটরিং করার দায়িত্ব জেলা প্রশাসকের, আমাদের নয়।

Disconnect