ফনেটিক ইউনিজয়
সুবর্ণচরে সড়ক বেহাল
আরিফুর রহমান, সুর্বণচর (নোয়াখালী)

নোয়খালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরক্লার্ক আক্তার মিয়ার হাট থেকে সদর আঞ্চলিক সড়কের বিভিন্ন স্থানে কার্পেটিং উঠে খানাখন্দ সৃষ্টি হয়েছে। এতে ওই অঞ্চলের মানুষকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
সরেজমিনে দেখা যায়, সড়কটির অনেক অংশেই এখন কার্পেটিং উঠে মাটি বের হয়ে গেছে। এতে বিশেষ করে প্রতিনিয়ত বাইসাইকেল, মোটরসাইকেল ও অটোরিকশা দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে।
সুবর্ণচর এলজিআইডি সূত্রে জানা যায়, সুবর্ণচরের আক্তার মিয়ার হাট বাসস্ট্যান্ড থেকে জেলা সদরের সোনাপুর বাজার পর্যন্ত সড়কের দূরত্ব ২৯ কিলোমিটার। ২০১৪ সালে সড়কটি মেরামত করা হয়। দীর্ঘদিন মেরামত না করা ও ভারী যানবাহন চলাচলের কারণে সড়কের বিভিন্ন স্থানে খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে। বর্ষাকালে সড়কে পানি জমে থাকায় এসব সমস্যা বেশি হয়।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এ সড়কে বাস, ট্রাক, মাইক্রোবাস, বাটাহাম্বার, নছিমন, করিমন, ট্রলি, ইজিবাইক, সিএনজিসহ বিভিন্ন যানবাহন চলাচল করে। এ অঞ্চলের সোলেমান বাজার, হাজি ইদ্রিস বাজার, আক্তার মিয়ার হাট, এছহাক মুন্সির হাট, কেরামতপুর, চর ওয়াপদা, নবগ্রাম, গাজির খেয়া, ভাটিরটেক, ধর্মপুর ইউপিসহ আশপাশের বিভিন্ন ইউনিয়ন, গ্রাম ও হাটবাজারের মানুষ এ সড়ক দিয়ে সদরে যাতায়াত করে। এছাড়া সুবর্ণচর থেকে নদীপথে হাতিয়া ও নিঝুমদ্বীপ যাওয়ার জন্যও এ রাস্তা ব্যবহার করা হয়। কিন্তু অনেক দিন ধরে সংস্কার না করায় রাস্তাটি বেহাল হয়ে পড়েছে।
প্রকৌশলী মো. তাসাউর বলেন, ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেটের বরাদ্দ থেকে এ সড়কের ২৯ কিলোমিটারের মধ্যে ১৫ কিলোমিটার (এলজিইডির আওতায়) রাস্তার কাজ শুরু করতে পারব বলে আশাবাদী।

Disconnect