ফনেটিক ইউনিজয়
ঋষিদের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়নি
ইমরান হোসেন, নড়াইল

নড়াইলের আউড়িয়ার ঋষিপল্লীর ইতিহাস শত বছরের। এ গ্রামের বাঁশ ও বেত দিয়ে তৈরি করা বাহারি রঙের জিনিসপত্র বিক্রি করে শত বছর ধরে ভাগ্যবদলের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ঋষিপল্লীর শতাধিক পরিবার। একসময় এ পল্লীর দুই শতাধিক পরিবার এ পেশার সাথে জড়িত থাকলেও দিন দিন বিভিন্ন কারণে পেশা বদল করতে বাধ্য হয়েছে। বর্তমানে এ পল্লীর শতাধিক পরিবার বাপ-দাদার পেশাকে কোনো করমে আঁকড়ে ধরে আছে। একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের ঋণ নিয়ে তারা চালিয়ে যাচ্ছে বেঁচে থাকার এ লড়াই।
ঋষিপল্লীর বাসিন্দারা জানান, কয়েক বছর আগের তুলনায় বর্তমানে বাঁশ, বেত, তার, সুতার দাম কয়েক গুণ বেড়েছে। ১০ বছর আগে একটি বাঁশের দাম ছিল ১০০-২৫০ টাকা, এখন এর দাম ৩০০-৬০০ টাকা। একজন পুরুষ সারাদিন কাজ করে রোজগার করেন ৩৫০-৬০০ টাকা পর্যন্ত। একজন নারী সাংসারিক কাজের ফাঁকে এ কাজ করে আয় করেন ১০০-২৫০ টাকা।
একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের সদর উপজেলা সন্বয়কারী মো. মনিরুজ্জামান বলেন, সদর উপজেলায় ২১৮টি সমিতি রয়েছে। এর সদস্যসংখ্যা ৯ হাজার ৩৩৯। সমিতিতে মূলধন রয়েছে প্রায় ১১ কোটি টাকা, যা সদস্যদের মাঝে বিতরণ করা হয়।

Disconnect