ফনেটিক ইউনিজয়
ভরা মৌসুমেও ইলিশের আকাল
খান রুবেল, বরিশাল

চলছে ইলিশের ভরা মৌসুম। সাগরে জেলের জালে মিলতে শুরু করেছে ইলিশ। তবে ইলিশের আকাল পড়েছে নদ-নদীতে। তাই সকালে মৎস্য আড়তগুলোয় কর্মব্যস্ততা থাকলেও বিকাল কাটছে অলস। এদিকে ইলিশের আকাল থাকায় জোয়ার-ভাটার মতোই ওঠা-নামা করছে ইলিশের মূল্য। আজ কমলেও কাল আকাশছোঁয়া মূল্য। তবেী দু-এক সপ্তাহের মধ্যে ইলিশের মূল্য বর্তমানের তুলনায় অনেকাংশ কমবে বলে আশাবাদী মৎস্য আড়তদাররা। ইলিশশূন্য মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে অলস সময় পার করছেন শ্রমিকরা। কেউ কেউ দাবা, ক্যারম, তাস ও লুডু খেলার মধ্যদিয়ে সময় পার করছেন।
বরিশাল মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের মেসার্স লিয়া মৎস্য আড়তের মালিক মো. নাসির উদ্দিন মিয়া বলেন, চলতি মৌসুমটি ইলিশ মৌসুম হিসেবে পরিচিত। গত মৌসুমের এমন দিনে কম হলেও এক হাজার মণ ইলিশ আহরণ ছিল। কিন্তু সেখানে চলতি মৌসুমে ইলিশের আহরণ ২০০-৩৫০ মণ পর্যন্ত উঠছে। কখনও বাড়ছে আবার কখনও হঠাৎ করেই কমে যাচ্ছে। সেই সাথে মূল্যও ওঠানামা করছে।
অন্যদিকে নগরীর একমাত্র বেসরকারি মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র পোর্ট রোডের মৎস্য শ্রমিক আলমগীর বলেন, ইলিশের ট্রলার এলে আমাদের পেটে ভাত জোটে; না এলে নয়। বর্তমানে যে পরিস্থিতি বিরাজ করছে, তাতে আমরা এক বেলা কাজ করতে পারলেও অন্য বেলায় বসে থেকে দিন কাটাচ্ছি। বিশেষ করে চলতি ভরা মৌসুমে এতটা ইলিশের খরা হবে, তা বুঝতেও পারিনি।

Disconnect