ফনেটিক ইউনিজয়
বিশেষ ক্লাসের নামে চলছে ‘কোচিং’
শওকত হোসেন সৈকত, ধামরাই

ধামরাইয়ের বান্নল লাক্ষু হাজি উচ্চ বিদ্যালয়ে বিশেষ ক্লাসের নামে কোচিং করতে বাধ্য করা হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। এ স্কুলে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিটি ক্লাসেই শিক্ষার্থীরা ক্লাস করছে। প্রতিদিন সকাল ৭.৩০টা থেকে ৯.৫০টা পর্যন্ত এ ক্লাস চলে। উপস্থিত শিক্ষার্থীদের কাছে জানতে চাইলে তারা বলে, আমরা সারা বছরই এ কোচিং ক্লাস করি। আমাদের ১০.৩০টা থেকে স্কুলের নিয়মিত ক্লাস। বেতনের কথা জিজ্ঞেস করলে তারা বলে, মাসে ১ হাজার টাকা দিতে হয়। বিশেষ ক্লাসের নামে ষষ্ট থেকে দশম শ্রেণিতে এ কোচিং করানো হচ্ছে। তবে স্কুল কর্তৃপক্ষ বলছে, সরকারি নির্দেশ মেনেই আগ্রহী শিক্ষার্থীদের নিয়ে ‘বিশেষ ক্লাস’ করানো হচ্ছে।
একজন অভিভাবক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, একরকম জোরপূর্বক এ কোচিং করানো হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। শিক্ষার্থীরা যাতে মুখ না খোলে, সেজন্য তাদের হুমকিও দেয়া হয়েছে। এতে শিক্ষার্থীদের স্কুলের নিয়মিত ক্লাসের আগ্রহ কমে যাচ্ছে। এ বিষয়ে স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল গফুর  বলেন, কোচিং বাণিজ্য বন্ধের নীতিমালা ২০১১ অনুসারে পিছিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে অতিরিক্ত ক্লাস নেয়া যাবে। তবে এক্ষেত্রে কাউকে বাধ্য করা যাবে না। আমরা সে অনুসারেই বিশেষ ক্লাস করাচ্ছি। যেহেতু গতবার জেএসসিতে আমাদের বিদ্যালয়ের ফল খারাপ হয়েছিল।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বলেন, বছরে তিন মাস শুধু অষ্টম ও দশম শ্রেণির জন্য বিশেষ ক্লাসের অনুমতি আছে। এছাড়া অন্য কোনো ক্লাসের কোচিং করানোর কোনো অনুমতি নাই। যদি এমন হয়, তাহলে আমরা দ্রুত ব্যবস্থা নেব।

Disconnect