ফনেটিক ইউনিজয়
পাটের বাম্পার ফলনে আশাবাদী কৃষক
এইচ আলিম, বগুড়া

এ বছর বগুড়ায় পাটের ফলন ও দাম দুটোই ভাল হয়েছে। জেলায় এবার লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১ লাখ ৬৯ হাজার ৮১৫ বেল।
চলতি মৌসুমে বগুড়া জেলায় পাটের বাম্পার ফলনে সোনালী পাটে সোনালী স্বপ্ন দেখছে পাট চাষিরা। ন্যায্য মূল্য পাওয়ার আশায় নতুন পাট ঘরে তুলতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন জেলার বিভিন্ন এলাকার পাট চাষিরা।
জেলায় এ বছর ১৫ হাজার ৫৫০ হেক্টর জমিতে পাট চাষ হয়েছে। পাটের ভাল ফলন পেয়েছে চাষিরা। বগুড়া সদর, ধুনট, সারিয়াকান্দি, শেরপুর, শিবগঞ্জ উপজেলায় পাটের ভাল ফলন হয়ে থাকে। বিঘা প্রতি প্রায় ১০ মন লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও চলতি মৌসুমে গড়ে বিঘা প্রতি ১২ মন ফলন পাওয়া গেছে বলে বলছেন কৃষি কর্মকর্তারা।
বগুড়ার ধুনট উপজেলার পাট চাষিরা জানায়, এক বিঘা জমিতে পাট চাষে খরচ হয় ৭ থেকে ৮ হাজার টাকা। আর ভাল ফলন হলে ৮ থেকে ১০ মন পাট পাওয়া যায়। কিন্তু এবছর প্রায় ১১ মন পাট পাওয়া গেছে। পাটকাঠিও বেশ পাওয়া গেছে। গত বছরের তুলানায় দাম ভাল। তোষা জাতের পাট ১ হাজার ৮০০ টাকা থেকে ২ হাজার টাকা পর্যন্ত আর মেচতা জাতের পাট ২ হাজার থেকে ২ হাজার ২০০ টাকা মন দরে বিক্রি হচ্ছে।
বগুড়া কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক প্রতুল চন্দ্র সরকার জানান, গত বছরের চেয়ে চলতি বছর পাটের ভাল ফলন পাওয়া যাচ্ছে। বেশিরভাগ উপজেলায় পাটের ভাল ফলন হওয়ার কারণে এ লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। পৌনে পাঁচমন পাটে এক বেল হয়ে থাকে।

Disconnect