ফনেটিক ইউনিজয়
অদক্ষ প্রশিক্ষক দিয়ে প্রশিক্ষণ
ফেরদৌস সিদ্দিকী, রাজশাহী

রাজশাহী কারিগরী প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) চলছে বেশির ভাগ অদক্ষ প্রশিক্ষক দিয়ে। এতে কাক্সিক্ষত প্রশিক্ষণ পাচ্ছেন না প্রশিক্ষণার্থীরা। রয়েছে জনবল সংকটও। তারপরও সাধ্যমতো প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার কথা জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।
অনুমোদিত জনবল কাঠামো অনুযায়ী, প্রতিষ্ঠানটিতে মঞ্জুরীকৃত পদ রয়েছে সবমিলিয়ে ১১৭টি। কিন্তু কর্মরত রয়েছেন ৮৭ জন। উপাধ্যক্ষ নেই প্রায় দুই বছর। চলতি দায়িত্বের উপাধ্যক্ষ দিয়ে কার্যক্রম চলছে।
সরাসরি প্রশিক্ষণ কার্যক্রমে অংশ নেন এমন জনবল সংকট দীর্ঘদিন ধরেই। এখানকার ছয় চীফ ইন্সট্রাক্টরের তিন পদ শুন্য তিন বছর ধরে। প্রায় আড়াই বছর ধরে খালি সাত সিনিয়র ইন্সট্রাক্টরের পদ ও আট ইন্সট্রাক্টরের পদও শূন্য।
অনুসন্ধানে জানা গেছে, প্রতিষ্ঠানটিতে কর্মরত প্রশিক্ষকদের একটি বড় অংশ অদক্ষ। সিনিয়র ইন্সট্রাক্টর আফছার উদ্দিন ভূঁইয়া ইলেকট্রিক্যাল টেকনোলজিতে ডিপ্লোমা প্রকৌশলী। তিনি কর্মরত আছেন প্লাম্বিং অ্যান্ড পাইপ ফিটিং ট্রেডে। তার স্ত্রী ফারহানা বীথি ওই ট্রেডের চীফ ইন্সট্রাক্টর। এসএসসি উত্তীর্ণ হয়েও ট্রোড কোর্স সনদ দিয়ে চাকরি করছেন তিনি। এই ট্রেডের ইন্সট্রাক্টর নাজিম উদ্দিন আহমেদ আল সিরাজী মেকানিক্যাল টেকনোলজিতে ডিপ্লোমা ডিগ্রিধারী। কম্পিউটার ট্রেডের সিনিয়র ইন্সট্রাক্টর আফজালুল হক প্রামাণিকের একাডেমিক যোগ্যতা ইলেকট্রিক্যাল টেকনোলজিতে ডিপ্লোমা। রেফ্রিজারেশন এন্ড এয়ারকন্ডিশনিং ট্রেডের সিনিয়র ইন্সট্রাক্টর আতাউর রহমান পাওয়ার অটোমোটিভ টেকনোলজিতে ডিপ্লোমা প্রকৌশলী। ইন্সট্রাক্টর হুমায়ুন কবির ও গোলাম সারওয়ার হোসেনও একই ডিগ্রিধারী। গার্মেন্টস ট্রেডের সিনিয়র ইন্সট্রাক্টর ওয়ালিউর রহমানের শিক্ষাগত যোগ্যতা বিএ। তিনিও ট্রেড কোর্স সনদে চাকরি করছেন।
জানতে চাইলে প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ প্রকৌশলী মাহবুবুর রশিদ তালুকদার বলেন, কতিপয় শিক্ষক অনিয়ম করে যাচ্ছিলেন দীর্ঘদিন ধরেই। এ নিয়ে বার বার তাদের সর্তক করা হয়েছে। কারণ দর্শানোর নোটিশও দেয়া হয়েছে। কিন্তু তারা সন্তোষজনক জবাব না দিয়ে বিশৃংখলা শুরু করেছেন। তাদের তোলা অভিযোগ পুরোপুরি ভিত্তিহীন।

Disconnect