ফনেটিক ইউনিজয়
সেবা পেতে জনগণের ভোগান্তি
আখতারুজ্জামান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলায় দীর্ঘদিন থেকেই সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও কানুনগোর দু’টি পদই শূন্য রয়েছে।  ফলে ভূমি সংক্রান্ত কাজের জন্য উপজেলার সাধারণ মানুষ চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন।
উপজেলা ভূমি কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ৯ জানুয়ারি সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে পাপিয়া সুলতানা যোগদান করেন। কিন্তু তিনি ৬ মাস দায়িত্ব পালন করার পর মাতৃত্বকালীন ছুটিতে চলে যান।
পরে তিনি ছুটিতে থাকা অবস্থায় গত ৬ জুন অন্যত্র বদলি হন। এরপর থেকে প্রায় একবছর ধরে এই পদ শূন্য রয়েছে। একই সঙ্গে কানুনগোর পদটিও শূন্য রয়েছে। ফলে খারিজ সংক্রান্ত কাজে বেশি সময় লাগার কারণে জমির মালিকেরা প্রয়োজনমতো তাদের জমি কেনাবেচা করতে পারছেন না। এই সুযোগে এক শ্রেণির দালাল জমির মালিকদের ভূমি সংক্রান্ত কাজ দ্রুত করে দেওয়ার লোভ দেখিয়ে অতিরিক্ত টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবিহা সুলতানা বলেন, আমার দপ্তর থেকে প্রায় আড়াই লাখ মানুষের রাষ্ট্রীয় সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করার পর কর্তৃপক্ষের নির্দেশে আমাকে ভূমি অফিসের অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করতে হয়। প্রশাসনিক কাজে ব্যস্ত থাকায় জনগণকে সেবা দিতে কিছুটা কমতি হলেও সাধ্য অনুযায়ী চেষ্টা করছি। তবে সহকারী কমিশনার (ভূমি) শূন্য পদে লোক দিলে ভোগান্তি থেকে কিছুটা স্বস্তি ফিরে আসতো জনগণের মাঝে।

Disconnect