করোনাকালের প্রথম ক্রিকেট ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের জয়

করোনাভাইরাসের কারণে প্রায় চার মাস বন্ধ থাকার পর ফিরেছে ক্রিকেট। সাউদাম্পটনের রোস বোলে ক্রিকেট প্রত্যাবর্তনের ম্যাচে স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে ৪ উইকেটে হারিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। টেস্টের শেষ দিনে দ্বিতীয় ইনিংসে ২০০ রানের টার্গেট ৪ উইকেট হাতে রেখে টপকে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এর আগে ইংল্যান্ড তাদের দ্বিতীয় ইনিংসে ৩১৩ রানে অলআউট হয়। প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের ২০৪ রানের জবাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩১৮ রানে অলআউট হয়।

টেস্টের পঞ্চম ও শেষ দিনে ৩১৩ রানে অলআউট হয় ইংলিশরা। ক্যারিবীয় পেসার শ্যানন গ্যাব্রিয়েল ৫ উইকেটে নেন। 

২০০ রানের লক্ষ্যে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই চাপে পড়ে যায় সফরকারীরা। ২৭ রান তুলতেই ৩ উইকেট হারায়। এরপর চতুর্থ উইকেট জুটিতে জার্মেইন ব্ল্যাকউড ও রোস্টন চেজ ৭৩ রানের জুটি গড়ে শুরু চাপ ভালো ভাবে সামাল দেন। চেজ ৩৭ রান করে আউট হন।

তবে কোনো ভুল করেননি ব্ল্যাকউড। অল্পের জন্য সেঞ্চুরি বঞ্চিত হন তিনি। সেঞ্চুরি থেকে পাঁচ রান আর দলের জয় থেকে ১১ রান দূরে থাকতে ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন ব্ল্যাকউড। এরপর অধিনায়ক হোল্ডার ও আঘাত পেয়ে মাঠে ফেরা ওপেনার জন ক্যাম্পবেল দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন। 

ইংল্যান্ডের হয়ে ৩ উইকেট নেন জোফরা আরচার। ২ উইকেট নেন বেন স্টোকস। ১ উইকেট নেন মার্ক উড। দুই ইনিংসে ৯ উইকেট নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের শ্যানন গ্যাব্রিয়েল ম্যাচসেরা হয়েছেন।

এর আগে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ২০৪ রানে প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় ইংল্যান্ড। ৬ উইকেট নেন জেসন হোল্ডার। ৪ উইকেট নেন শ্যানন গ্যাব্রিয়েল। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩১৮ রান করে। কার্লোস ব্রাফেট ৬৫ এবং শেস ডরউইচ করেন ৬১ রান। বেন স্টোকস ৪ উইকেট এবং জেমস অ্যান্ডারসন নেন ৩ উইকেট।

১১৪ রান পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ইংল্যান্ড অলআউট হয় ৩১৩ রানে। গ্যাব্রিয়েল নেন ৫ উইকেট। রস্টোন চেজ এবং অ্যালজারি জোসেফ নেন ২টি করে উইকেট।

পরে ২০০ রানের লক্ষ্য তাড়ায় নেমে ৪ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় ক্যারিবিয়রা।

তিন ম্যাচ সিরিজ ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আগামী ১৬ জুলাই ম্যানচেস্টারে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

মন্তব্য করুন

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh