ঈদের দিন লাশ হয়ে বাড়ি ফিরলো সাব্বির

শরীয়তপুরে ঈদের দিনে সড়ক দুর্ঘটনায় এক যুবক নিহত হয়েছে। 

সকালে ঈদের নামাজ পড়ে মায়ের হাতে সেমাই খেয়ে প্রিয় বাইসাইকেল চালিয়ে নানা বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিল স্কুলছাত্র সাব্বির (১৪)। পথি মধ্যে দ্রুতগতির মটরবাইক কেড়ে নেয় সাব্বিরের প্রাণ। তাই ঈদের দিন নানাবাড়ি যাওয়া হয়নি সাব্বিরের। লাশ হয়ে নিজ বাড়িতে মায়ের কাছে ফিরতে হয়েছে তাকে।

শনিবার (১ আগস্ট) বেলা ১১টার দিকে শরীয়তপুর সদর উপজেলার সুবচনী বাজার সংলগ্ন বালার বাজার-নাগেরপাড়া সড়কে মটরবাইক চাপায় মারা যায় সাব্বির। সাব্বির সদর উপজেলার পূর্ব সোনামুখি গ্রামের অটোরিকশা চালক আফজাল মৃধার ছেলে ও সুবচনী উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র।

নিহত সাব্বিরের চাচা মোহাম্মদ আলী মৃধা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সাব্বির ঈদের নামাজ পড়ে মায়ের হাতে সেমাই খেয়ে বাইসাইকেল চালিয়ে পার্শ্ববর্তী পশ্চিম সোনামুখি গ্রামের নানা বাড়ি যাচ্ছিল। সুবচনী বাজারের কাছাকাছি পৌঁছলে দ্রুতগতির একটি মটরবাইক সাব্বিরকে পেছন থেকে চাপা দেয়।

এতে সাব্বির, মটরবাইক চালক রাজা বেপারী (১৬) ও মটরবাইক আরোহী মাহিম (১৫) গুরুতর আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক সাব্বিরকে মৃত ঘোষণা করেন এবং রাজা ও মাহিমকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করেন। রাজা পশ্চিম সোনামুখি গ্রামের সাঈদ বেপারীর ছেলে ও মাহিম ডামুড্যা উপজেলার মডেরহাট পূর্বকান্দি গ্রামের রিপন খালিফার ছেলে।

পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় এখনো কেউ মামলা দায়ের করেনি। মামলা হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য করুন

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh