ফনেটিক ইউনিজয়
সা ক্ষা ৎ কা র
সিনেমার ক্ষুধা নাটকে মিটাই

অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনা। অনিমেষ আইচের ‘ভয়ংকর সুন্দর’ ছবির মধ্য দিয়ে বড় পর্দায় অভিষেক। বর্তমানে ছোট পর্দার কাজ নিয়ে বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন। সমসাময়িক নানা প্রসঙ্গে কথা বলেছেন তিনি। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন এনআই বুলবুল

আসছে ঈদের জন্য আপনার উপন্যাস ‘গুলনেহার’ অবলম্বনে নাটক নির্মাণ করছেন। এটি সম্পর্কে জানতে চাই।  
এটি আমার প্রথম উপন্যাস। গত বইমেলায় এটি প্রকাশিত হয়েছে। পাঠকদের কাছ থেকে বইটির প্রশংসা পেয়েছি। নাটকটি অনিমেষ আইচ আসছে ঈদের জন্য নির্মাণ করছেন। ৮৭ বছরের এক বৃদ্ধার স্বপ্ন, প্রেম আর কষ্ট নিয়ে এ উপন্যাসের গল্প। অনেকে হয়তো ভাবছেন, নাটকটিতে প্রধান চরিত্রে আমি অভিনয় করব। কিন্তু সেটি হচ্ছে না। আমি এটিতে দর্শকের জন্য চমক রাখতে চাই।

ঈদের অন্য ব্যস্ততা নিয়ে বলুন।
ঈদের জন্য এরই মধ্যে অনিমেষ আইচের ‘গিফট’, সোহেল রানা ইমনের ‘মেঘ পিয়নের চিঠি’ ও সাগর জাহানের ছয় পর্বের একটি ধারাবাহিকের কাজ করেছি। এগুলো ছাড়াও ঈদের আরও বেশ কিছু নাটকে আমাকে দেখা যাবে। এখন ঈদের কাজ নিয়েই সব ব্যস্ততা। দর্শকদের ভালো কিছু কাজ দিয়ে ঈদের আনন্দ বাড়াতে চাই।

অভিনয়ের সময় কোন বিষয়গুলোকে গুরুত্ব দিয়ে থাকেন?
আমি যখন যে কাজ করি, সেটিই স্পেশাল। শুধু টাকার জন্য কখনই অভিনয় করিনি। আগামীতেও করব না। ভালো কাজগুলোর মধ্য থেকে বেছে বেশি ভালো কাজটা আমার করা হয়। স্ক্রিপ্টের সঙ্গে আমি নাটক বা টেলিছবি কে পরিচালনা করবেন সেটিও দেখি। কারণ একজন ভালো নির্মাতাই একটি স্ক্রিপ্ট পর্দায় সঠিকভাবে চিত্রায়ন করতে পারেন।

টিভি নাটকের সার্বিক অবস্থা নিয়ে আপনার মন্তব্য কী?
আমরা সিনেমার ক্ষুধা নাটকে মিটাই। আমাদের দেশেই শুধু সিঙ্গেল নাটক নির্মাণ হচ্ছে। যেটি আমাদের পাশের দেশ কিংবা অন্য কোথাও নেই। প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়েই এ নাটকগুলো হচ্ছে বলে মনে করি। পাশের দেশে আমরা গেলে তারা আমাদের নাটকের কথা বলে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আমাদের নাটকের দর্শক দেখি। নাটক ভালো না হলে নিশ্চয় এ দর্শকরা আমাদের নাটক দেখতেন না।

টিভি নাটকে পছন্দের শিল্পী কে?
জয়া আহসান আপুর অভিনয় ভালো লাগে। তবে তিনি এখন ছোট পর্দায় কাজ করেন না। তাই ছোট পর্দায় এখন প্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা আপু। কিন্তু তিনিও এখন বড় পর্দায় বেশি কাজ করছেন।

‘ভয়ংকার সুন্দর’ ছবির পর আপনাকে এখনও নতুন ছবিতে না পাওয়ার কারণ কী?
এ ছবির নয়নতারা চরিত্রটি দর্শকের মনে দাগ কাটে। নয়নতারা চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছি। নয়নতারার মতো কোনো চরিত্র পেলে দর্শক অবশ্যই আমাকে নতুন চলচ্চিত্রে পাবে। ভালো একটি চরিত্রের অপেক্ষায় আছি।

শোবিজে অভিনেত্রীদের আলোচনা-সমালোচনা নিয়ে আপনার প্রতিক্রিয়া?
কেউ কেউ আলোচনা-সমালোচনায় আসার জন্য নানা রকম খবরের জন্ম দেন। সেগুলো তাদের ব্যক্তিগত বিষয়। কাজ দিয়ে আলোচনায় আসতে পারলে সেটি শিল্পীর সার্থকতা। এছাড়া সমালোচনা নিয়ে কখনও ভাবি না। আমি চাই দর্শক আমার সৌন্দর্য নয়, অভিনয়ের আলোচনা করুক। একজন অভিনেত্রী হয়ে দর্শকের মধ্যে থাকতে চাই।

একজন অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে কোন পর্যায়ে দেখতে চান?
অভিনয় আমার ধ্যান-জ্ঞান। সবসময় আমার মধ্যে অভিনয়ের ক্ষুধা থাকে। সু-অভিনেত্রী হতে চাই। আমি যখন থাকব না, তখন দর্শক কাজের মধ্য দিয়ে আমাকে খুঁজে নেবে। একজন শিল্পী হিসেবে এটি আমার একান্ত চাওয়া।

Disconnect