ফনেটিক ইউনিজয়
সা ক্ষা ৎ কা র
নতুন চরিত্র নিয়ে আসতে চাই

জনপ্রিয় অভিনেত্রী মাহিয়া মাহি। গেল ঈদে এ অভিনেত্রীর ‘মনে রেখো’ ও ‘জান্নাত’ শিরোনামের দুটি চলচ্চিত্র মুক্তি পেয়েছে। চলচ্চিত্র ও ব্যক্তিগত বিভিন্ন বিষয়ে তার সঙ্গে কথা বলেছেন এনআই বুলবুল

ঈদের ছবি থেকে কেমন সাড়া পেলেন?
ঈদের ছবি থেকে দর্শকের ভালো সাড়া পেয়েছি। তবে ‘জান্নাত’ ছবি নিয়ে প্রত্যাশা অনেক বেশি ছিল। কিন্তু সেটি হয়নি। অনেকদিন পর সাইমনের সঙ্গে ছবি করলাম। এটিতে আমি পোড়ামনের স্বাদ পেয়েছি। তবে ছবিটি কম হলে মুক্তি পেয়েছে। আরও বেশি হলে মুক্তি পেলে ভালো লাগত। ছবিটি ঈদের পরও মুক্তি দিলে হয়তো হলের সংখ্যা নিয়ে এমন হতো না।

ছবি দুটি কি সিনেমা হলে দেখেছেন?
মনে রেখো ছবিটি হলে দেখেছি। উফ! দর্শকদের মাঝে ছবি দেখার অন্যরকম আনন্দ। হাত তালি দিচ্ছে, মজার দৃশ্যে চিৎকার করছে। দর্শক আমার ছবি এত আনন্দ নিয়ে দেখছে, অনেক ভালো লেগেছে।

সাইমনের সঙ্গে অভিনয়ের অভিজ্ঞতা কেমন?
আমাদের দুজনের প্রথম জুটিবদ্ধ ছবি ‘পোড়া মন’। ছবিটি দর্শকের মধ্যে দারুণ সাড়া ফেলে। দীর্ঘদিন পর ‘জান্নাত’ ছবিতে আমরা আবার একসঙ্গে কাজ করেছি। অভিনেতা হিসেবে সাইমন বরাবরই ভালো। ব্যক্তি সাইমনও ভালো মানুষ। তার সঙ্গে আমার সখ্যতাও বেশ। ছবিতে আমরা অনেক মজা করে অভিনয় করেছি। আগামীতেও দর্শক আমাদের একসঙ্গে পাবে বলে আশা করছি।

বর্তমান ব্যস্ততা কী নিয়ে?
‘তুই শুধু আমার’, ‘অন্ধকার জগত’, ‘পবিত্র ভালোবাসা’, ‘প্রেমের বাঁধন’, ‘আমার মা আমার বেহেস্ত’ ছবিগুলো এখন আমার হাতে আছে। চলতি বছরে এখান থেকে আরও দু-একটি ছবি দেখবে দর্শক। সব ছবিতে আমি কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছি। প্রতিটি ছবির গল্প ও চরিত্রে দর্শক আমার অভিনয়ে ভিন্নতা দেখবে। নতুন নতুন চরিত্র নিয়ে দর্শকের সামনে আসতে চাই।

শোনা যায়, আপনি অভিনয় থেকে সরে দাঁড়াবেন?
আমার বিয়ের পর থেকে এটি শুনে আসছি। অভিনয় থেকে সরে দাঁড়াব কেন? আমি আমার মতো গল্প ও চরিত্রে কাজ করতে চাই। এখনও অনেক ছবি নিয়ে ব্যস্ত আছি। এর পরও সরে দাঁড়ানোর বিষয়টি আসতে পারে না। তবে ভালো গল্পের জন্য প্রয়োজনে বছরে দু-একটি ছবিতে অভিনয় করব। কিন্তু মানহীন ছবিতে অভিনয় করে সুনাম নষ্ট করতে চাই না।

এ সময়ের চলচ্চিত্র নিয়ে আপনার ভাবনা কী?
আমি একজন চলচ্চিত্রের শিল্পী। সুতরাং আমি অবশ্যই চাইব চলচ্চিত্র অঙ্গন যেন সুন্দর থাকে। চলচ্চিত্রের মানুষের মধ্যে এখন নানা বিভাজন দেখা যায়। আমি মনে করি, চলচ্চিত্রের মঙ্গলের জন্য সবাইকে একসঙ্গে কাজ করা প্রয়োজন। আমাদের চলচ্চিত্রের বাজেট এখন আগের চেয়ে বেড়েছে। এখন শুধু দরকার সবার একতা ও ভালো নির্মাণ।

সিনেমা হলের ভালো পরিবেশ না থাকার কারণে চলচ্চিত্রে ব্যবসা হচ্ছে না বলে অনেকে মন্তব্য করেন। আপনি কী মনে করেন?
চলচ্চিত্রের ব্যবসার জন্য শুধু সিনেমা হলের পরিবেশ ভালো হলে চলবে না। ভালো সিনেমাও লাগবে। কিন্তু এখন সিনেমা নির্মাণের সংখ্যা কমে গেছে। প্রতি সপ্তাহে দর্শক নতুন ছবি পাচ্ছে না।

আপনার সংসারজীবন সম্পর্কে শুনতে চাই।
অপুর (স্বামী) সঙ্গে আমার কেমিস্ট্রি  দারুণ। সংসারজীবন দারুণ কাটছে। সময় পেলে আমি শ্বশুরবাড়ি থেকে বেড়িয়ে আসার চেষ্টা করি। সব মিলিয়ে ভালো আছি।

Disconnect