সবুজ চায়ের যত গুণ

পাত্রে সবুজ চা।

পাত্রে সবুজ চা।

গ্রিন টি অর্থাৎ সবুজ চা উপকারি ও স্বাস্থ্যসম্মত পানীয়। এতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসহ উপকারি সকল পুষ্টি উপাদান। এতে থাকা পলিফেনল উপাদান ওজন কমাতে সাহায্য করে। সাধারণ চায়ের তুলনায় এর স্বাস্থ্য উপকারিতা বেশি।   

জেনে নিন গ্রীন টি তথা সবুজ চায়ের স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে:  

ওজন কমাতে

সবুজ চায়ে থাকা পলিফেনল ওজন কমাতে সাহায্য করে। গবেষকরা মনে করেন গ্রিন টি একদিনে ৭০ ক্যালরি পর্যন্ত বার্ন করতে পারে। এটি বিপাক ক্রিয়া বৃদ্ধি করে। এর ফলে শরীরে বাড়তি ও অতিরিক্ত চর্বি জমতে পারে না।

উচ্চ রক্তচাপ কমাতে

গ্রিন টিতে থাকা উপাদান, উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। চিকিৎসকরা মনে করেন নিয়মিত গ্রীন টি খেলে উচ্চ রক্তচাপের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে। 

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ

গ্রিন টি রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। তাই প্রতিদিন গ্রিন টি পান করলে আপনার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকবে এবং আপনি সুস্থ  থাকবেন। 

হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে

গ্রিন টি রক্ত চলাচলকে স্বাভাবিক রাখে এবং রক্ত জমাট বাঁধতে দেয় না। যার ফলে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমে।

ক্যান্সার প্রতিরোধে 

গ্রিন টি তথা সবুজ চায়ে থাকা পুষ্টি উপাদান ত্বক ও খাদ্যনালীর ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে। এছাড়াও লিভার ক্যান্সার, স্তন ক্যান্সার, গল ব্লাডার ক্যান্সার, প্রোস্টেট ক্যান্সার দূরীকরণে এটি সাহায্য করে। শরীরের বিভিন্ন কোষগুলোতে যেন ক্যান্সারের  জীবাণু প্রবেশ করতে না পারে, এবং কোষগুলোকে আঘাত করতে না পারে সেদিকে খেয়াল রাখে এটি। 

স্মৃতিশক্তি বাড়াতে

সবুজ চা শ্মৃতিশক্তি বাড়াতে ভূমিকা রাখে। আলঝেইমার্স নামের রোগ স্মৃতি বিনষ্ট করে। নিয়মিত গ্রিন টি পান করলে আলঝেইমার্স তথা ভুলে যাওয়া রোগ থেকে মুক্তি মেলে। গ্রিন টি নিউরনকে সঠিকভাবে চালাতে সহায়তা করে এবং ব্রেন সুস্থ রাখে। 

পেটের চর্বি কমাতে

সবুজ চায়ে ক্যাটচীন থাকে। এটি পেটের চর্বি কমাতে সাহায্য করে। এছাড়া এতে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যা শরীরের অতিরিক্ত মেদ কমাতে সাহায্য করে। বিশেষ করে পেটের চর্বি কমাতে সাহায্য করে গ্রিন টি।  

রোগ প্রতিরোধ

সবুজ চা তথা গ্রিন টি দেহকে ক্ষতিকর প্রভাব থেকে রক্ষা করে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। নিয়মিত গ্রিন টি খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় এবং দেহ থাকে নীরোগ ও সুস্থ।

দাঁত ভালো রাখে

গ্রিন টি মাউথ ওয়াশ হিসেবে দারুণভাবে কাজ করে। নিয়মিত গ্রীন টি পান করলে মুখের দূর্গন্ধ দূর হবে। মুখের ব্যাকটেরিয়া দূর করে। কারণ এতে রয়েছে ক্যাটেনাইন নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়াকে ধ্বংস করে। 

ত্বক ও চুলের যত্নে

ত্বক ও চুলের সৌন্দর্য চর্চায় গ্রিন টি সাহায্য করে। গ্রিন টি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে। ব্রণ দূর করে এবং ত্বক ফাটা থেকে রক্ষা করে। চুল ভালো রাখতেও সহায়তা করে এটি।  

মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার

© 2019 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh