ইনক্রিমেন্ট কি দেয়া হবে না?

অর্থ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন প্রজ্ঞাপন-সিদ্ধান্তগুলোর অপূর্ণতা ও অস্পষ্টতার কারণে শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী মৃত কর্মচারীর পরিবার (বিধবা স্ত্রী-বিপত্নীক স্বামী) নানা আর্থিক সুযোগ-সুবিধা থেকে সম্পূর্ণ বা আংশিকভাবে বঞ্চিত হচ্ছে। বিষয়টি সমাধানের জন্য সরকারি উচ্চ পর্যায়ের কোনো সিদ্ধান্ত আসছে না। 
সরকার ২০১৭ সালের জুলাই থেকে পেনশনে বার্ষিক ৫ শতাংশ ইনক্রিমেন্ট ঘোষণা করে, যা পেনশনাররা প্রতি মাসের পেনশনে ও উৎসব ভাতায় এবং পেনশন সমর্পণকারীরা তাদের উৎসব ভাতায় পাচ্ছেন। মৃত পেনশনারদের উত্তরাধিকারীরা তাদের উৎসব ভাতা ৫ শতাংশ ইনক্রিমেন্টসহ পাচ্ছেন। পেনশন সমর্পণকারী মৃতদের পরিবারকে উৎসব ভাতা দেওয়া হচ্ছে; কিন্তু ইনক্রিমেন্ট দেওয়া হচ্ছে না। বলা হচ্ছে, প্রজ্ঞাপনে তাদের কথা উল্লেখ নেই। 
২৮ বছর আগে তৃতীয় জাতীয় বেতন স্কেলের আওতায় সপ্তম গ্রেডের শেষ প্রান্তে এসে অবসরে গিয়ে যে ব্যক্তি অথবা তার স্ত্রী বা স্বামী বেঁচে আছেন, তিনি এখন পেনশন পান মাত্র সাড়ে চার হাজার টাকা। 
নতুন পে স্কেলে তার সমপর্যায়ের কর্মচারী অবসরে গিয়ে পেনশন পাচ্ছেন সাড়ে ৩১ হাজার টাকা। উভয়কেই কিন্তু একই বাজার থেকে একই দামে চাল, ডালসহ সব সেবা কিনতে হয়। ওই বিষয়গুলোর প্রতি বিশেষভাবে পেনশন সমর্পণকারী মৃত কর্মচারীদের পরিবারের পেনশন ও আর্থিক সুবিধার বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

ওয়াহিদুল ইসলাম আখন্দ।
অবসরপ্রাপ্ত সহকারী মহাব্যবস্থাপক, অগ্রণী ব্যাংক।


মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার

© 2019 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh