বীমার কারণে যেনো কালো ছায়া নেমে না আসে

বীমা আমাদের জীবনের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। উন্নত দেশগুলোতে নাগরিকদের জন্য বিভিন্ন ধরনের বীমা আছে। বাংলাদেশে বীমা সম্পর্কে অনেকে এখনো খুব বেশি কিছু জানে না। যে মানুষগুলো অল্প বেতনের চাকরি করে অথবা ছোট ব্যবসায় করে অথবা শ্রমজীবী হিসেবে কাজ করে সেই মানুষগুলো অল্প বয়সে মারা গেলে তাদের পরিবার কঠিন সমস্যায় পতিত হয়। 

বীমাকে সর্বজনীন করা গেলে অনেক সমস্যার সমাধান হয়ে যায়। অন্ততপক্ষে মৃত ব্যক্তির পরিবার সাময়িক কষ্ট থেকে মুক্ত হতে পারেন। একটি কোম্পানিতে যদি কর্মরত অফিসার এবং শ্রমিকদের জন্য বীমা করা থাকে, তাহলে এটা কোম্পানির লাভ। কারণ কর্মচারীরা এতে প্রেষণা পেয়ে থাকে। বাংলাদেশে অনেক বীমা কোম্পানি কাজ করছে। আমরা যারা সাধারণ মানুষ আছি, তাদের অনেকে মনে করি বীমা কোম্পানিগুলো মৃত ব্যক্তির পরিবারকে বীমার টাকা ঠিকভাবে পরিশোধ করে না। তাই বীমা কোম্পানিগুলোকে অনুরোধ জানাব- যদি আইনের বাধ্যবাধকতা না থাকে, তাহলে জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকার মাধ্যমে কতজন বীমাগ্রহীতার টাকা পরিশোধ করা হয়েছে তা প্রচার করতে।

আমাদের সরকার আমাদের অভিভাবক। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের অল্প বেতনের কর্মচারী, ড্রাইভার, ছোট ব্যবসায়ের মালিক, দিনমজুর বলতে গেলে সাধারণ পরিবারের একজন অভিভাবকের মৃত্যুর পর পরিবারে যেন অন্ধকারের কালো ছায়া নেমে না আসে তার জন্য বিশেষ ব্যবস্থার মাধ্যমে সবাইকে বীমার আওতায় নিয়ে আসা যায় কি না তার জন্য সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

রূপম চক্রবর্ত্তী
পূর্ব নলুয়া, সাতকানিয়া, চট্টগ্রাম।

মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার

© 2019 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh