অনুপাত প্রথা

একজন বেসরকারি কলেজ শিক্ষক আজীবন প্রভাষক

বিশ্ববিদ্যালয় সর্বোচ্চ ডিগ্রি অর্জন করে অনেকেই কলেজে যোগদান করে কিন্ত পরবর্তীতে তাদের চোখ অন্ধকার ছাড়া কিছুই দেখে না। জীবনে একটি প্রমোশন সহকারী অধ্যাপক তাও অনুপাত প্রথায়। কিন্ত কেনো?

বর্তমান নিয়মে দশ বছর পার হলে একজন কলেজ শিক্ষকের মাত্র একহাজার বাড়ে আর দীর্ঘ ষোল বছর পেরুলেই সাতহাজার টাকা বাড়বে। অথচ আগের নিয়মে কোন শিক্ষক অনুপাত প্রথায় সহকারী অধ্যাপক পদে প্রমোশন না পেলে তাকে উচ্চতর স্কেল ২৯০০০/-এ উন্নীত করা হতো।

প্রতিষ্ঠানের যোগদানের জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে সহকারী অধ্যাপকের প্রমোশন- এতে করে মেধার কোনো মূল্যায়ণ করা হয় বলে আমার মনে হয় না। অনুপাত প্রথায় না হয়ে যদি একটি সময় পার হলে প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার মাধ্যমে সবাইকে সহকারী অধ্যাপকে প্রমোশন দেয়া হতো তাহলে মানুষ গড়ার কারিগর শিক্ষকের প্রতি এতো অবিচার হতো না। 

প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা কার্যক্রমকে গতিশীল রাখার জন্য শিক্ষার কাজে নিয়োজিত মানুষদের নিয়মিত প্রমোশন পাওয়া তাদের অধিকার। অথচ একজন প্রভাষক তার হাজারো যোগ্যতা থাকার পরেও জীবনের শেষ পর্যায় অবসরের সময় চলে আসলেও তিনি প্রভাষক। 

অবিলম্বে এই অনুপাত প্রথার অবসান চাই আমরা কলেজ শিক্ষকগণ। এটি কলেজ শিক্ষকদের প্রাণের দাবি। এই দাবি পূরণে সরকার আন্তরিক হবেন বলে আশা করি।

লেখক: সৈয়দ শাহাদাত হোসাইন
সহকারী অধ্যাপক,
বাকলিয়া শহিদ এন এম এম জে বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, চট্টগ্রাম।


মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার

© 2019 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh