ফনেটিক ইউনিজয়
চাকরির ইন্টারভিউর আদব-কেতা

ইন্টারভিউ একটা যুদ্ধক্ষেত্রের মতো। ভুল করলে দ্বিতীয় সুযোগ আর পাওয়া যাবে না। তাই ইন্টারভিউ দক্ষতা বাড়াতে জেনে নিন কিছু টিপস-
-কথা না বলেই ইন্টারভিউ রুমে ঢুকে প্রথমেই আপনার জোরালো উপস্থিতি বোঝাতে হবে।
-সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে ইন্টারভিউয়ারদের সালাম দিন। তাঁদের চোখে চোখ রাখুন,
-ভদ্রভাবে, আত্মবিশ্বাস নিয়ে হ্যান্ডশেক করুন।
-ক্যাজুয়াল ড্রেসে ইন্টারভিউতে যাওয়া ঠিক নয়। আপনাকে মার্জিত পোশাক পরতে হবে।
-ভালো যোগাযোগের ক্ষেত্রে শোনা এবং যিনি কথা বলছেন তাঁর কথাগুলো যে আপনি শুনেছেন, সেটি তাঁকে বোঝানো জরুরি। প্রশ্নকর্তা কীভাবে, কোন স্টাইলে কথা বলছেন, তা উপলব্ধি করুন।
-প্রশ্নকর্তা যা জানতে চান, তার চেয়ে বেশি কথা বলা আপনার জন্য মারাত্মক ক্ষতির কারণ হতে পারে। তাই বেশি কথা বলা এড়িয়ে যান।
-পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নিয়ে যান। যদি পর্যাপ্ত প্রস্তুতি না থাকে, তাহলে প্রশ্নকর্তার নানা প্রশ্নে খেই হারিয়ে ফেলতে পারেন আপনি। এতে নার্ভাস হয়ে বকবকও করতে পারেন। তাই ইটারভিউর জন্য পর্যাপ্ত পড়াশোনা করে যাবেন।
-ইন্টারভিউর আগে বেশ কিছু প্রশ্ন তৈরি করে কোনো বন্ধু বা আত্মীয়ের সহায়তা নিয়ে ইন্টারভিউ দেওয়ার চর্চা করবেন।
-যে পদের জন্য আপনি আবেদন করেছেন, তা সম্পর্কে, পদের জন্য যেসব অভিজ্ঞতা চাওয়া হয়েছে, সেসব বিষয়ে স্পষ্ট ধারণা নিয়ে তারপর ইন্টারভিউতে যাবেন।
-প্রশ্নকর্তা যে ভঙ্গিতে প্রশ্ন করছেন, তাঁকে অনুসরণ করে সেভাবেই উত্তর দিন। ইন্টারভিউর সময় আপনার ব্যক্তিত্বের স্ফুরণ, আত্মবিশ্বাস, আগ্রহ প্রকাশ করা এবং প্রাসঙ্গিক প্রশ্ন করাও জরুরি। তবে খেয়াল রাখতে হবে এসব যেন দৃষ্টিকটু না হয়।
-খেয়াল রাখবেন যেন আপনার কোনো অনুপযুক্ত শব্দচয়ন (হতে পারে তা ধর্ম, রাজনীতি, যৌনতা বা অন্য যেকোনো বিষয়ে) যেন প্রশ্নকর্তাদের বিব্রত না করে।
-ইন্টারভিউ রুমে আত্মবিশ্বাস, পেশাদারিত্ব আর শিষ্টাচার এসবের মাঝে সুন্দর ভারসাম্য রক্ষা করতে পারলে জয় আপনার হবেই। কারণ ইন্টারভিউতে উতরে যাওয়ার ক্ষেত্রে আপনার আচরণ একটি বড় ধরনের ভূমিকা রাখে।
-অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাস দেখাতে যাবেন না। কারণ আপনি যোগ্যতর হলেও অতিমাত্রায় আত্মবিশ্বাস আর উদ্ধত আচরণ আপনার সুযোগ নষ্ট করে দিতে পারে।
-নিজের সব ঘটনা সুন্দরভাবে গুছিয়ে বলার চেষ্টা করুন। আগের চাকরি বা নানা বিষয়ে প্রশ্ন করলে কী বলবেন, তা আগে থেকেই গুছিয়ে নিন।
-কোম্পানিটি আপনার জন্য সঠিক জায়গা হবে কি না প্রশ্ন করার মাধ্যমে আপনি তা জেনে নিন।
-ইন্টারভিউর সময় ‘প্লিজ আমাকে চাকরিটা দিন’ ধরনের মরিয়া ভাব দেখাবেন না। এতে আপনার আত্মবিশ্বাস ক্ষতিগ্রস্ত করবে।
-ইন্টারভিউর সময় ধীর, স্থির ও দৃঢ়সংকল্প থাকুন। আপনি জানেন চাকরিটা পাওয়ার যোগ্যতা আছে আপনার। প্রশ্নকর্তাকেও সেটা বুঝতে দিন।

Disconnect