ফনেটিক ইউনিজয়
আদার যত গুণ
লাইফস্টাইল ডেস্ক

আমাদের নিত্যব্যবহার্য উপাদানের মধ্যে একটি হলো আদা। প্রতিদিনই আমরা রান্নায় আদা ব্যবহার করি। খাবার মজাদার করতে আদা ব্যবহার কলরেও আদার রয়েছে বেশ কিছু ঔষধি গুণাগুণ, যা হয়তো আমাদের অজানা। আদায় প্রায় ৫০ ধরনের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বিদ্যমান। তবে রান্নার পাশাপাশি কাঁচা আদা খেতে পারলে বেশ কিছু সমস্যার সহজ সমাধান হয়। যেমন-
-প্রকৃতিতে এখন বর্ষাকাল। এ সময় বৃষ্টিবাদল প্রায় লেগেই থাকে। তাই জ্বর বা ঠাণ্ডা যেন পিছু ছাড়ে না। তাই বর্ষাকালে প্রতিদিন সকালে এক কাপ আদা পানি বা আদা চা খেলে উপকার পাওয়া যায়। পাশাপাশি শরীর থাকে ঝরঝরে।  
-হঠাৎ করে বমিভাব বা বমি হলে আদার রসের সঙ্গে সামান্য লবণ মিশিয়ে খেলে নিমিষেই এ সমস্যা সমাধান হয়ে যায়।
-আদায় ‘জিনজেরল’ নামক এক ধরনের রাসায়নিক পদার্থ আছে, যা অ্যাসপিরিনের মতো কাজ করে, ফলে হার্ট অ্যাটাক প্রতিরোধ হয়।
-উল্টাপাল্টা ও বেশি ভাজাপোড়া খাবারের কারণে বুক জ্বলার সমস্যা হতে পারে। ২ কাপ পানিতে ২ ইঞ্চি আদা ছেচে জ্বাল দিয়ে চায়ের মতো তৈরি করে পান করলে বুক জ্বলা কমে যায়।
-আদার রস ব্যথানাশক ওষুধের মতো কাজ করে। সরাসরি আক্রান্ত স্থানে লাগানো যায় আবার আদার রস পান করলেও উপকার পাওয়া যায়।
-আদা হজম সমস্যা সমাধান করে এবং পেটে ব্যথা দূর করে। প্রতিদিন সকালে ১ কাপ আদা চা পান করলে পুরো দিন পেট ফাঁপা বা বদহজম থেকে মুক্ত থাকা যায়।
-গলাব্যথা, বা কাশির জন্য আদা খুব উপকারী।

Disconnect