সাবানের চেয়ে স্যানিটাইজার কি বেশি প্রয়োজনীয়?

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে অনেকেই ঘন ঘন স্যানিটাইজার ব্যবহার করছেন। তবে প্রশ্ন হলো শুধু স্যানিটাইজারেই কি হাত পরিষ্কার হবে? না কি সাবান বা হ্যান্ডওয়াশে আস্থা রাখতে হবে? করোনা-সতর্কতার অন্যতম প্রধান এই সমাধান নিয়েও শুরু হয়েছে নানা বিভ্রান্তি।

ঘন ঘন হাত ধোয়ার ক্ষেত্রে ঢিলেমি দিচ্ছেন অনেকেই। অনেকে কাজের সময় হাতের কাছেই নিয়ে বসছেন হ্যান্ড স্যানিটাইজার। বাজারেও চড়া দাম এর।

কিন্তু হাত ধোয়ার পরিবর্তে ঘন ঘন স্যানিটাইজারেই কি মিলবে পরিত্রাণ? কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা?

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ সুবর্ণ গোস্বামীর মতে, ‘‘হ্যান্ড স্যানিটাইজার কখনোই কচলে হাত ধোয়ার বিকল্প হতে পারে না। সাবান এর চেয়ে ভালো বিকল্প। সাবান বা জীবাণুনাশক হ্যান্ডওয়াশ দিয়ে কচলে হাত ধুলে হাতের তালুর প্রায় ৯০-৯৫ শতাংশ জীবাণু মরে যায়। কিন্তু সেই তুলনায় সাধারণ সুগন্ধী হ্যান্ডওয়াশে হাত ততোটা সুরক্ষিত থাকে না। আবার হাত কচলে না ধুলেও হাতের উপরিভাগে, নখের কোনায়, আঙুলের ফাঁকে ফাঁকে অনেক সময় জীবাণু থেকে যায়। তাই কচলে হাত ধোয়াই সেরা উপায়। বরং নিয়ম মেনে, ঘন ঘন হাত ধুলে স্যানিটাইজারের প্রয়োজনও পড়ে না।’’

স্যানিটাইজার ব্যবহার প্রসঙ্গে সুবর্ণ গোস্বামী বলেন, ‘‘স্যানিটাইজার দিন, তবে হাত না ধুয়ে শুধু এতে ভরসা করলে কাজের কাজ হবে না। একান্তই হাত ধোয়ার অবস্থায় না থাকলে তবেই স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে তুলতে। আইসোপ্রোফাইল অ্যালকোহল বা ইথাইল অ্যালকোহল মেশানো স্যানিটাইজারও সাবান বা জীবাণুনাশক হ্যান্ডওয়াশের মতো জীবাণু রুখতে সক্ষম নয়। তা ব্যবহার করুন, কিন্তু একমাত্র তাকেই সহায় করে তুলবেন না। জীবাণুনাশক হ্যান্ডওয়াশ দিয়ে বা সাবান দিয়ে ভালো করে হাত ধোয়াই বাঁচার পথ।’’

তার সঙ্গে সহমত ক্রিটিক্যাল কেয়ার বিশেষজ্ঞ অঙ্কন সেনগুপ্তও। তার মতে, ‘‘হাত কচলানো, ফেনা ও জলের সমন্বয়ে হাত যে ভাবে পরিষ্কার হয়, স্যানিটাইজার ততোটা পারে না। বাইরে থাকলে, হাত ধোয়ার উপায় একান্তই না থাকলে তখন হাতের কাছে রাখা স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন। কিন্তু তাকেই একমাত্র সহায় ধরবেন না। ভালো করে হাত না ধুয়ে শুধু স্যানিটাইজার ব্যবহারেই করোনা-হানা রুখে দেওয়া যাবে, এমন ধারণা ভিত্তিহীন।’’

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

মন্তব্য করুন

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh