আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের বাড়ি নির্মাণের আহ্বান ফখরুলের

ঘূর্ণিঝড় আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে দলের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ‘আমি ঘূর্ণিঝড়ে নিহতদের রুহের মাগফিরাত কামনা ও তাদের শোক বিহ্বল পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। ঘূর্ণিঝড়ে আহতদের আশু সুস্থতা কামনা করছি এবং তাদের দ্রুত সুচিকিৎসা নিশ্চিতকরণ ও ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের বাড়িঘর নির্মাণে অবিলম্বে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সহযোগিতা প্রদানের জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।’

বৃহস্পতিবার (২১ মে) দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে তিনি এ আহ্বান জানান।

ফখরুল বলেন, ‘আমফানের ন্যায় প্রাকৃতিক দুর্যোগে ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত অঞ্চলসমূহের জনগণের প্রতি আমি সহমর্মিতা জ্ঞাপন করছি। বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বের করোনাভাইরাস মহামারিতে দুর্বিষহ জনজীবনের ওপর এই প্রবল ঘূর্ণিঝড়ের অভিঘাত এক ভয়াবহ বিপর্যয়। তবুও আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, অতীত ঐতিহ্যের ন্যায় উপকূলবর্তী অঞ্চলসমূহের সাহসী মানুষরা তাদের শোক ও ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে উঠে নবউদ্যোমে জীবন সংগ্রামে বিজয়ী হবে ইনশাল্লাহ।’

বিবৃতিতে বলা হয়, গতকাল (বুধবার) উপকূলীয় জেলাসমূহে সুপার সাইক্লোন আমফানের তীব্র আঘাতে হতাহতের ঘটনাসহ মানুষের ঘরবাড়ি, রাস্তাঘাট, গাছপালা, গবাদি পশু ধ্বংস হওয়ার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘উপকূলীয় এলাকা সাতক্ষীরা দিয়ে আসা এই প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে বেশ কয়েকটি পয়েন্টের বেড়িবাঁধ ভেঙে অনেক এলাকা প্লাবিত হয়েছে। বহু চিংড়ি ঘের ও বিস্তীর্ণ এলাকা তলিয়ে গেছে এই দানবীয় ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে। এছাড়াও কলা ক্ষেত, পানের বরোজ এবং আমসহ ফসলি ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। মানুষের জীবন ও সম্পদ হয়েছে বিপন্ন, প্রাণহানিসহ অসংখ্য মানুষ আহত হয়েছে। হাজার হাজার মানুষ ঘরবাড়ি হারিয়ে গৃহহীন হয়ে পড়েছে।’

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘আমি মহান রাব্বুল আলামীনের দরবারে প্রার্থনা করছি, তিনি যেন ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে এই বিশাল শোক ও কষ্ট সইবার ক্ষমতা দান করেন। আমি বিএনপির সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের আহ্বান জানাচ্ছি, তারা যেন সকল সামর্থ্য নিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ান। পাশাপাশি সমাজের সচ্ছল ব্যক্তিদেরকেও উপদ্রুত এলাকায় অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানাচ্ছি।’

মন্তব্য করুন

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh