ঈদে শ্রমিকদের বেতন-ছুটির ব্যাপারে সহমর্মিতার আহ্বান কাদেরের

ঈদে শ্রমিকদের পর্যায়ক্রমে ছুটি দেয়াসহ তাদের বেতন-ভাতা পরিশোধে মালিকদের সহমর্মিতা দেখাতে বিজেএমইএ এবং বিকেএমইএর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

ওবায়দুল কাদের আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘ঈদের আগেই শ্রমিকদের বেতন-ভাতা পরিশোধে মালিকগণ বরাবরের মতো এবারো সহমর্মিতার নজির স্থাপন করবেন বলে আামর বিশ্বাস’।

আজ শনিবার (৪ জুলাই) সকালে ওবায়দুল কাদের তার সরকারি বাসভবনে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ সময় ঈদ উল আজহার তিনদিন আগে থেকে সড়ক মহাসড়কে পণ্যবাহী ট্রাক, কাভার্ডভ্যান বন্ধ রাখতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান। 

তবে কৃষি, শিল্প ও রপ্তানিমুখী পণ্য, চিকিৎসা সরঞ্জাম, ত্রাণ, জ্বালানি, ওষুধ, খাদ্যদ্রব্য,পচনশীল পণ্যসহ জরুরি সার্ভিস এর আওতামুক্ত থাকবে বলে তিনি জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ঈদের আগে পরে ৮ দিন সড়ক-মহাসড়ক সংলগ্ন সিএনজি স্টেশনগুলো ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকবে। ফিটনেসবিহীন যানবাহন কোরবানির পশুরহাটে চলাচলে বিরত থাকবে।

পশুরহাটের অনুমতি প্রদানের ক্ষেত্রে সড়ক-মহাসড়কের উপরে কিংবা আশপাশে পশুরহাট বসানো যাবে না বলে তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন। এক্ষেত্রে এ বছর কমসংখ্যক হাট বসানোর বিষয়টি বিবেচনার পাশাপাশি অনলাইনে পশু বেচা-কেনার বিষয়টিও বিকল্প হিসেবে বিবেচনা করার পরামর্শ দেন।

তিনি বলেন, ধর্মীয় অনুভূতির পাশাপাশি কোরবানি ঈদ কেন্দ্রিক অর্থনীতির সাথে অনেক মানুষের জীবন ও জীবিকা সংযুক্ত, পশুপালন, এ্যনিম্যাল ফার্মিং, পশুর চামড়া রপ্তানিসহ ঈদ-অর্থনীতি দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক প্রবাহে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে শেখ হাসিনা সরকারের যে অবস্থান তা এগিয়ে নিতে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলারও আহ্বান জানান তিনি।

বাড়িওয়ালা ভাড়াটিয়াদের সাথে অমানবিক আচরণ এবং শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়াসহ মালপত্র ফেলে দেয়ার অভিযোগের ব্যাপারে ওবায়দুল কাদের বলেন, সংকটে অনেকের আয় কমেছে, হারিয়েছে চাকরি, আবার কেউ কেউ পরিবার নিয়ে কষ্টে জীবন যাপন করছেন, এমন পরিস্থিতিতে একে অপরের প্রতি সমব্যথী হতে হবে।


মন্তব্য করুন

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh