ফনেটিক ইউনিজয়
পর্ব ৮৪
রাজনীতির গপ্পো
মোস্তফা সোহেল

গ্লোরিয়া জিনসের কফিশপে বসে বেশ মজা পায় হাসান। খোলামেলা। সিগারেট পানের জন্য আলাদা স্পেসও আছে। নওশীন দুটো হট চকলেট কফির অর্ডার করে। হাসান একটা সিগ্রেট ধরিয়ে নওশীনকে দেখতে থাকে। নওশীন আজ পড়েছে সাদা টি-শার্ট আর নীল রঙের জিনস। হাসান কবিতা পড়ে,
‘সুতোপা তুমি আজ সবুজ রঙের কার্ডিগানটা পরো/ লাল-কালো বুটিদার সেই সবুজ জমিনে-মাঝে মাঝে তুমি ঠিক পরী হয়ে ওঠো।’ নওশীন হাসে। বলে, আহা বাদ দাও না! রাজনীতির খবর বলো।
হাসান বলে, রাজধানী ঢাকার বেশির ভাগ সড়কে তৈরি হয়েছে খানাখন্দ। জমে থাকছে পানি। সব মিলিয়ে এসব সড়কে চলছে এক নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি। অসংখ্য দুর্ভোগ পোহাচ্ছে সাধারণ মানুষ। শ্যামলী, মোহাম্মদপুরের অলিগলি, ডিআইটি চৌধুরীপাড়া, ঢাকার পল্লবী, সিপাহীবাগ, মালিবাগ মোড়সহ অসংখ্য জায়গায় সমস্যা! এদিকে ঈদের ছুটিতে লাখ লাখ মানুষ গ্রামের বাড়িতে যাচ্ছে।  কিন্তু সড়ক বেহাল। নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় পুরোনো ফেরিগুলো বিপৎসংকুল হয়ে ওঠায় এবং রাস্তায় অসম্ভব জ্যামের কারণে এবারের ঈদযাত্রায় বেশ ভুগছে মানুষ।
হুম। সরকারকে এসব সমস্যা চ্যালেঞ্জের মধ্যে রেখেছে। শুধু তা-ই নয়, ভয়াবহ এই বন্যা সামলাতেও সরকার বেশ ব্যস্ত। তবে আমরা চাই উন্নত সড়ক যোগাযোগব্যবস্থা। আর সেই সঙ্গে চাই ঈদে স্বচ্ছন্দে বাড়ি ফেরার নিশ্চয়তা।
রাইট। আচ্ছা, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ধারাবাহিক সংলাপের অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার থেকে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপ শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে ধারাবাহিক সংলাপের প্রথম দিনে বৃহস্পতিবার বেলা তিনটায় ইসি বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের ১২ জন প্রতিনিধির সঙ্গে সংলাপ শুরু করে। আর কিছু জানো এ বিষয়ে?
পর্যায়ক্রমে নিবন্ধিত ৪০টি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপে বসবে ইসি। ইতিমধ্যে ১২টি দলের সঙ্গে সংলাপের সময়সূচি চূড়ান্ত করা হয়েছে। ঈদের আগে ছয়টি দলের সঙ্গে সংলাপ হবে। ঈদের পরে আগামী ১০ সেপ্টেম্বর থেকে আবার সংলাপ শুরু হবে। তবে ইসির সঙ্গে ডায়ালগ করে কী লাভ হবে, তা কি এখনো খুব পরিষ্কার?
আসলে ইসি এ দফায় সবার বক্তব্য শুনছে। দেখা যাক সব দলের মতামত নেওয়ার পর তারা কীভাবে তাদের স্ট্র্যাটেজি সাজায়।
যা-ই হোক, যেভাবেই হোক, ইসিকে একটি অবাধ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করতেই হবে। এদিকে ঢাকায় আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দক্ষিণ এশিয়াবিষয়ক ভারপ্রাপ্ত সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী এলিস ওয়েলস। মঙ্গলবার (২৯ আগস্ট) এক দিনের সফরে তাঁর ঢাকায় আসার কথা রয়েছে বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে। কী আলোচনা হতে পারে মনে হয়?
সাধারণভাবে দুই দেশের পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়নে হয়তো এ ধরনের সফর গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে, তবে জঙ্গিবাদ নির্মূল, অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন-এসব প্রসঙ্গ আলোচনায় উঠে আসবে বলে পর্যবেক্ষক মহল মনে করছে।
রাইট। নয়টা বেজে গেছে। চলো বাড়ি ফিরে যাই। তার আগে যদি কোনো পলিটিক্যাল জোকস শোনাতে! হাসান হাসে।  
একদিন একটি গ্রামে একটি বিমান আছড়ে পড়ল। গ্রামবাসী বিমানের সকল যাত্রীকে মৃত ভেবে কবর দিয়ে দিল। সেই বিমানে একজন রাজনীতিবিদ ছিল। খবর পেয়ে সাংবাদিকেরা সেই গ্রামে গেল খবর সংগ্রহ করতে। ওই গ্রামের সবচেয়ে গণ্যমান্য ব্যক্তিকে প্রশ্ন করল, ‘সব যাত্রীই মারা গেছে, এই ব্যাপারে কি আপনারা নিশ্চিত?’
লোকটি বলল, ‘কবর দেওয়ার সময় যদিও রাজনীতিবিদ সাহেব বলছিলেন যে উনি জীবিত। কিন্তু রাজনীতিবিদ তো তাই কথাটা বিশ্বাস করি নাই। কবর দিয়া দিছ।’

আরো খবর

Disconnect