ফনেটিক ইউনিজয়
এবার স্টেডিয়ামে খেলা দেখবেন সৌদি নারীরা
মনিরুল ইসলাম

নারীদের ক্ষেত্রে বিশ্বের সবচেয়ে রক্ষণশীল দেশ হলো সৌদি আরব। দীর্ঘ সময় ধরে এখানে ক্রীড়াঙ্গনে বিভিন্ন বিধিনিষেধ আরোপিত রয়েছে। সেখানে জনসমক্ষে কোনো নারীর পর্দা ছাড়া চলাফেরা একেবারেই নিষিদ্ধ। নারীরা স্টেডিয়ামে প্রবেশ বা সেখানে গিয়ে খেলা দেখা নিষিদ্ধ। তবে আর বেশি দিন নয় সে অপেক্ষা। এবার অন্য দেশগুলোর মতো সৌদি নারীরাও অনুমতি পাচ্ছেন স্টেডিয়ামে ঢোকার। আগামী বছর থেকে স্টেডিয়ামে গিয়ে বিভিন্ন খেলা উপভোগ করতে পারবেন সৌদি নারীরা। ৫ নভেম্বর যুগান্তকারী এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। এটি ক্ষমতাশালী সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বিভিন্ন সংস্কার কার্যক্রমের মধ্যে একটি। এর আগে তিনি সৌদি আরবে নারীদের গাড়ি চালানোর বিরুদ্ধে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছিলেন, যা কার্যকর হবে আগামী বছরের জুন থেকে।
সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে প্রকাশ করা জেনারেল স্পোর্টস অথরিটির এক বার্তায় বলা হয়, ২০১৮ সালের শুরু থেকেই রিয়াদ, জেদ্দা ও দাম্মামের স্টেডিয়ামে নারী দর্শকদের জন্য আসন সংরক্ষণের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে। এ জন্য স্টেডিয়ামের ভেতর রেস্টুরেন্ট, ক্যাফে ও মনিটর স্ক্রিন স্থাপনের কাজ চলছে বলে উল্লেখ করে কর্তৃপক্ষ।
গত মাসে সৌদি আরবের জাতীয় দিবস উদ্যাপন উপলক্ষে একটি ফুটবল ম্যাচ উপভোগ করার জন্য রিয়াদের স্টেডিয়ামে শত শত নারী দর্শককে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। দেশটির অভিভাবকত্ব নীতির আওতায় সেখানে একজন নারীর লেখাপড়া, ভ্রমণ ও অন্যান্য কার্যক্রমের জন্য তাঁর পরিবারের পুরুষ সদস্য বাবা, স্বামী কিংবা ভাইয়ের অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে।
কিন্তু ভিশন-২০৩০ পরিকল্পনার আওতায় কট্টর রক্ষণশীল এই দেশটিতে অনেক বিষয়েই ছাড় দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে সামাজিক সংস্কার। এমনকি নারীদের কর্মসংস্থানের বিষয়েও এতে জোর দেওয়া হয়েছে।

Disconnect