ফনেটিক ইউনিজয়
ফুটবল বিশ্বকাপ স্পটলাইটে থাকছেন যারা
মনিরুল ইসলাম

শুরু হলো ফুটবলের সবচেয়ে বড় মহারণ ফুটবল বিশ্বকাপ ২০১৮। ১৪ জুন শুরু হওয়া এ মহাযজ্ঞ পুরো এক মাস ধরে চলবে। রাশিয়ার ১১টি শহরের ১২টি ভেন্যুতে চলবে এ জমজমাট লড়াই। ১৫ জুলাই শিরোপা ফয়সালার মধ্য দিয়ে ৩২ দলের এ মহাযজ্ঞের পর্দা নামবে। এ মহোৎসবে রয়েছে বড় বড় দলের বড় তারকার ছড়াছড়ি। তাদের মাঝে এমন কিছু খেলোয়াড় আছেন, যাদের দিকে চোখ থাকবে ভক্ত-সমর্থক এমনকি প্রতিপক্ষেরও।

লিওনেল মেসি (আর্জেন্টিনা)
ক্লাব ফুটবলে বহু খেতাবের অধিকারী হলেও বিশ্বকাপ অধরাই থেকে গেছে ফুটবলের এ রাজপুত্রের। গতবার ফাইনালে জার্মানির কাছে হেরে রানার্সআপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় তার দলকে। এ বিশ্বকাপই সম্ভবত মেসির শেষ বিশ্বকাপ। কাজেই শেষবারের মতো নিজেকে উজাড় করে দিয়ে তিনি অবশ্যই চাইবেন জীবনের সবচেয়ে বড় অতৃপ্তিটা ঘোচাতে। আর সবার দৃষ্টি এখন সেদিকেই।

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো (পর্তুগাল)
রাশিয়ার বিশ্বকাপটাই হয়তো শেষ বিশ্বকাপ হতে যাচ্ছে ৩২ বছর বয়সী রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর।  তাই এ বিশ্বকাপকে স্মরণীয় করে রাখতে চাইবেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অরজয়ী এ উইঙ্গার। এ নিয়ে সপ্তমবারের মতো বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলতে যাচ্ছে রোনালদোর পর্তুগাল। তবে শিরোপার স্বাদ পায়নি একবারও। তাই এবার ব্যক্তি রোনালদোর ওপরও নজর থাকবে জোরালো।

লুইস সুয়ারেজ (উরুগুয়ে)
ফুটবল বিশ্বকাপের ইতিহাসে প্রথম চ্যাম্পিয়ন উরুগুয়ে। একসময় ফুটবলবিশ্বের অন্যতম শক্তশালী দলটি ধীরে ধীরে হারিয়ে যেতে থাকে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই থেকে। তবে গত কয়েক বছরে নিজেদের হারানো গৌরব কিছুটা ফিরে পেতে শুরু করেছে লাতিন আমেরিকার এ দলটি। এ পুনরুত্থানে নিঃসন্দেহে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখেছেন সুয়ারেজ। ৩০ বছর বয়সী বার্সেলোনার এ স্ট্রাইকার ৯৪ ম্যাচে গোল করেছেন ৪৭টি। ২০১৮ বিশ্বকাপে সন্দেহাতীতভাবেই সুয়ারেজ বড় ফ্যাক্টর হিসেবে আবির্ভূত হবেন।

মোহাম্মদ সালেহ (মিশর)
মিশরের চতুর্থ পিরামিড বলা হয় মোহাম্মদ সালেহকে। জাতীয় দলকে মূল পর্বে নিয়ে আসতে তার অবদানই যে ছিল সবচেয়ে বেশি। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব লিভারপুলের হয়ে  খেলেন এ ফরোয়ার্ড। চলতি মৌসুমে এরই মধ্যে অলরেডদের হয়ে ৪৪টি গোল করেছেন। প্রিমিয়ার লিগেই রয়েছে ৩২টি গোল। ফর্মে থাকা এ তারকার দিকেই তাকিয়ে রয়েছে অনেকেই।
এছাড়া ব্রাজিলের কৌতিনহো, স্পেনের  আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা ও ডেভিড সিলভা,  বেলজিয়ামের এডেন হ্যাজার্ড ও কেভিন ডি ব্রুইন, ফ্রান্সের কিলিয়ান এমবাপ্পে ও গ্রিজম্যানদের মতো ফুটবলারদের ওপর নজর থাকবে দর্শকের।

নেইমার (ব্রাজিল)
২০১৭ সালের শেষ দিকে ট্রান্সফারের বিশ্বরেকর্ড গড়ে বার্সেলোনা ছেড়ে ফ্রান্সের ক্লাব প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ে (পিএসজি) পাড়ি জমান ব্রাজিলিয়ান সেনসেশন নেইমার। মেসির ছায়া থেকে বের হয়ে যেন আরও অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছেন ২৫ বছর বয়সী এ ফরোয়ার্ড। গত বিশ্বকাপে তার অনুপস্থিতি সারা বিশ্ব দেখেছে জার্মানির বিপক্ষে তার দল বিধ্বস্ত হওয়ার ম্যাচে।  তাই ব্রাজিলের হেড কোচ তিতের আশা, বিশ্বকাপেও নেইমার ক্লাব ফুটবলের ফর্ম ধরে রাখবেন। প্রস্তুতি ম্যাচে গোল করে এর মধ্যেই সেই সম্ভাবনা দেখিয়েছেন নেইমার।

Disconnect