করোনার চিকিৎসায় প্রথম ট্যাবলেটের অনুমোদন

বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের চিকিৎসায় মুখে খাওয়ার ওষুধ ‘মলনুপিরাভির’ ট্যাবলেটকে অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাজ্য। দেশটির ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বুধবার এই অনুমোদন দেয়। খবর বিবিসির।

যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ কোম্পানি মার্ক (এমএসডি নামে যুক্তরাজ্যে পরিচিত) উদ্ভাবিত এই মলনুপিরাভির ট্যাবলেটটি করোনার চিকিৎসায় মুখে খাওয়ার প্রথম অ্যান্টিভাইরাল ওষুধ।

মূলত ফ্লু’র চিকিৎসার জন্য উদ্ভাবিত ওষুধটি ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে দেখা গেছে, এটি সেবনের ফলে করোনা রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি বা মৃত্যু অর্ধেক কমাতে সক্ষম হয়েছে। ‘মলনুপিরাভির’ নামের ট্যাবলেটটি যারা করোনায় সংক্রমিত বলে শনাক্ত হয়েছেন এবং ঝুঁকিতে রয়েছেন তাদের  দিনে দুই বার খেতে দেওয়া হবে।

ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ এক বিবৃতিত জানান, এই চিকিৎসা পদ্ধতি ‘গেমচেঞ্জার’। যুক্তরাজ্যের জন্য আজ এক ঐতিহাসিক দিন, বিশ্বে প্রথম দেশ হিসেবে একটি অ্যান্টিভাইরাল ওষুধ অনুমোদন পেয়েছে যা করোনার চিকিৎসায় বাসাতে সেবন করা যাবে।

যুক্তরাজ্যের ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা এমএইচআরএ জানায়, করোনায় আক্রান্ত হালকা থেকে মাঝারি অবস্থার রোগী যাদের স্থুলতা, বেশি বয়স, ডায়বেটিসি বা হৃদরোগের মতো অন্তত একটি গুরুতর ঝুঁকি রয়েছে তাদের জন্য এই ওষুধের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী জুন রেইনে এই চিকিৎসা পদ্ধতিকে করোনার বিরুদ্ধে একটি থেরাপিউটিক অস্ত্র হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //