বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা ফের ঊর্ধ্বমুখী

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা গত কিছুদিন ধরে ফের বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে  ৫ লাখ ২৯ হাজার ৭৭৫ জন। আর এ সময়ে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ২৭২ জনের।

দৈনিক সংক্রমণের হিসেবে বিশ্বে শীর্ষে ছিল যুক্তরাষ্ট্র, আর এ দিন কোভিডজনিত অসুস্থতায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ঘটেছে তাইওয়ানে।

জরিপ পর্যালোচনাকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের আজ শনিবার (১১ জুন) সকালের তথ্য অনুযায়ী, এ নিয়ে বিশ্বে এ পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৬৩ লাখ ২৯ হাজার ৮৮৭ জনের এবং শনাক্ত হয়েছে ৫৩ কোটি ৯৮ লাখ ১২ হাজার ৪৫ জন।  এছাড়া ভাইরাসটিতে আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠেছে ৫১ কোটি ২৪ লাখ ৩৫ হাজার ৭৮৫ জন।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৯৩ হাজার ৮৬২ জনে এবং মৃত্যু হয়েছে ২০৫ জনের। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৮ কোটি ৭২ লাখ ৪৬ হাজার ৩০৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১০ লাখ ৩৫ হাজার ৬৭৫ জন মারা গেছেন।

বিশ্বের দ্বিতীয় অন্যতম জনবহুল দেশ ভারত করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের তালিকায় রয়েছে যথাক্রমে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ কোটি ৩২ লাখ ১৩ হাজার ৪৩৫ জন এবং মারা গেছেন ৫ লাখ ২৪ হাজার ৭৫৭ জন।

ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যার দেশের তালিকায় রয়েছে যথাক্রমে তৃতীয় ও দ্বিতীয় স্থানে। এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট করোনা শনাক্তের সংখ্যা ৩ কোটি ১৪ লাখ ১৭ হাজার ৩৪১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ৬৮ হাজার ৭ জনের।

আক্রান্তের তালিকায় সপ্তম স্থানে আছে রাশিয়া। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৮৩ লাখ ৬০ হাজার ৫৫৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৭৯ হাজার ৮৩৩ জনের।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় তাইওয়ানে করোনায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে। এ দিন করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২১৩ জনের এবং করোনা শনাক্ত হয়েছেন ৬৮ হাজার ৩৪৭ জনের। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২৭ লাখ ৬২ হাজার ৮০ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ৭৯৭ জনের।

বিশ্বে বর্তমানে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ২ কোটি ১০ লাখ ৬৭ হাজার ৮৯৪ জন। এই রোগীদের মধ্যে করোনার মৃদু উপসর্গ বহন করছেন ২ কোটি ১০ লাখ ৩১ হাজার ১৯১ জন এবং গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় আছেন ৩৬ হাজার ৭০৩ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। চীনে করোনায় প্রথম কোনও রোগীর মৃত্যু হয় ২০২০ সালের ৯ জানুয়ারি। তবে তার ঘোষণা আসে ১১ জানুয়ারি। 

আর ১৩ জানুয়ারি চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে। পরে বিভিন্ন দেশে করোনা ছড়িয়ে পড়ে। গত ২ ফেব্রুয়ারি চীনের বাইরে করোনায় প্রথম কোনও রোগীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে ফিলিপাইনে।

২০২০ সালের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে ‘মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে ২০ জানুয়ারি জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে ডব্লিউএইচও।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //