স্কটল্যান্ডে ধর্ষণের দায়ে ভারতীয় বংশোদ্ভূত চিকিৎসকের কারাদণ্ড

ভারতীয় বংশোদ্ভূত চিকিৎসক মানিশ গিলকে ধর্ষণের দায়ে কারাদণ্ড দিয়েছে স্কটল্যান্ডের আদালত। গতকাল বুধবার (১৫ জুন) এডিনবার্গের আদালতে এ রায় দেওয়া হয়।

আজ বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ডেটিং অ্যাপের মাধ্যমে নার্সিং এর এক ছাত্রীর সঙ্গে পরিচয় হয় ৩৯ বছর বয়সী মানিশের। অ্যাপে তিনি নিজেকে মাইক নামে পরিচয় দিয়েছিলেন। এরপর ২০১৮ সালে স্টার্লিং-এর একটি হোটেলে ডেট করার জন্য মেয়েটিকে আমন্ত্রণ জানান মানিশ। সেখানেই তাকে যৌন নিপীড়ন করেন বলে জানা যায়।

এডিনবার্গের হাইকোর্টের বিচারক বলেন, ঘটনাটিকে দুঃখজনক এবং ভীতিকর বলে অভিযোগ জানান ওই নারী। চলতি বছরের শুরুতে ঘটনার তদন্ত শেষে তিন সন্তানের জনক মানিশকে বিচারের জন্য আদালতে উপস্থিত করা হয়। সম্প্রতি তাকে চার বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

এর আগে এডিনবার্গের উচ্চ আদালত তাকে দোষী সাব্যস্ত করে রায় ঘোষণা করে। সেই রায়ই এই আদালত বহাল রেখেছে।

সাজা দেওয়ার সময় বিচারক লর্ড টায়ার মানিশকে বলেছিলেন, আপনার কোনও অপরাধমূলক রেকর্ড নেই এবং আপনি স্পষ্টতই চিকিৎসা পেশার একজন মূল্যবান সদস্য ছিলেন। কিন্তু আপনার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। তাই আপনাকে অনির্দিষ্টকালের জন্য যৌন অপরাধীদের তালিকায় রেজিস্টার করে রাখা হবে।

স্কটল্যান্ড পুলিশের পাবলিক প্রোটেকশন ই্উনিটের গোয়েন্দা কর্মকর্তা ফোর্বস উইলসন বলেন, মানিশের কর্মকান্ড এবং শাস্তি পাওয়ার ঘটনা এই বার্তাই দিবে যে, কেউ যৌন অপরাধ করা করলে তাকে অবশ্যই বিচারের আওতায় আনা হবে এবং এর জন্য শাস্তি পেতে হবে।

তবে মানিশের দাবি পরস্পরের সম্মতিতেই তাদের মধ্যে যৌন সম্পর্ক হয়েছিল।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //