নাইজেরিয়ায় স্কুলে ফের হামলা, অপহৃত ৪০

ছবি: ডয়চে ভেলে

ছবি: ডয়চে ভেলে

নাইজেরিয়ায় স্কুলে ফের হামলা চালিয়ে অন্তত ৪০ জনকে অপহরণ করেছে বন্দুকধারীরা। তার মধ্যে ছাত্র ও শিক্ষক সবাই আছেন। 

গতকাল বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে দেশটির রাজধানী আবুজা থেকে ১৬০ মাইল উত্তর-পশ্চিমে কাগারার গভর্নমেন্ট সায়েন্স কলেজে এ ঘটনা ঘটে।

নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীকে দ্রুত অপহৃতদের খুঁজে বের করার নির্দেশ দিয়েছেন। স্থানীয় মানুষের বক্তব্য, ঘটনার পিছনে ক্রিমিনাল গ্যাংয়ের হাত রয়েছে। যদিও এখনো পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী দায় স্বীকার করেনি।

স্কুলটিতে প্রতিদিনের মতো বুধবারও সেখানে ক্লাস শুরু হয়েছিল। প্রত্যক্ষদর্শীদের বক্তব্য, স্কুলের পিছনের জঙ্গল এলাকা দিয়ে ভিতরে ঢুকে পড়ে আততায়ীরা। তাদের হাতে আধুনিক অস্ত্র ছিল। স্কুলের ছাত্র, শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মীদের তারা পিছনের ঝোপে নিয়ে যায়। অপহরণের সময় ছাত্ররা বাধা দেয়ার চেষ্টা করে। তারই জেরে অন্তত এক ছাত্রের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। 

স্কুল সূত্রে জানানো হয়েছে, অপহৃতদের মধ্যে ২৬ জন ছাত্র রয়েছে। বাকি সকলেই শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী।

ঘটনার পরেই এলাকার সমস্ত স্কুল বন্ধ করে দেয়া হয়। উদ্বিগ্ন অভিভাবকেরা স্কুলের সামনে জড়ো হন। দেশটির প্রেসিডেন্ট মোহাম্মাদু বুহারি স্বয়ং জানিয়েছেন, পুলিশ ও নিরাপত্তাকর্মীরা দ্রুত অপহৃতদের খুঁজে বের করবে। সবাই যাতে সুস্থভাবে ফিরতে পারেন, সে দিকে নজর দেয়া হবে। যত দ্রুত সম্ভব এ কাজ করা হবে।

গত কয়েক বছর ধরে নাইজেরিয়ায় স্কুল ছাত্রদের অপহরণের বিষয়টি চোখে পড়ার মতো বেড়েছে। এর আগেও একাধিকবার দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এমন ঘটনা ঘটেছে। সাধারণত ছাত্রদের অপরহরণ করে বড়সড় মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা। 

প্রেসিডেন্ট বলেছেন, স্কুল ছাত্রদের অপহরণের বিষয়টি যাতে বন্ধ হয়, তার জন্যেও পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এই ধরনের সব গ্যাংকে খতম করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

তবে সাধারণ গ্যাং ছাড়াও বোকো হারামের মতো গোষ্ঠী এই ধরনের কর্মকাণ্ডের সাথে যুক্ত থাকে। বোকো হারামের মতো গোষ্ঠীগুলো এ ধরনের কাজ করলে মুক্তিপণ দাবি করা হয় না। অতীতে তেমন ঘটনাও ঘটেছে। এবারের ঘটনায় এখনো পর্যন্ত মুক্তিপণ দাবি করেনি অপহরণকারীরা। তবে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, অপহরণকারীরা সাধারণ গ্যাংয়ের সদস্য বলেই তাদের মনে হয়েছে।

ডয়চে ভেলের স্থানীয় সাংবাদিক জানিয়েছেন, নাইজেরিয়ার অধিকাংশ স্কুলে সামনে গার্ড ওয়াল থাকলেও পিছনে থাকে না। পিছনে ঝোপ থাকে। তারই সুযোগ নেয় অপহরণকারীরা। ঝোপে লুকিয়ে থেকে সুযোগ মতো তারা স্কুলে হামলা চালায়। -ডয়চে ভেলে

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh