জাপানে করোনার নতুন আরেকটি স্ট্রেইন

ব্রাজিল থেকে জাপানে আসা চার যাত্রীর শরীরে করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেইন মিলেছে। যুক্তরাজ্যের স্ট্রেইন থেকে এই স্ট্রেইনটি আলাদা।

গতকাল রবিবার (১০ জানুয়ারি) টোকিও’র ভাইরোলজি ইনস্টিটিউট করোনার নতুন এই স্ট্রেইনের সন্ধান পেয়েছে বলে দাবি করেছে। 

ওই চার যাত্রী ব্রাজিল থেকে টোকিও বিমানবন্দরে পৌঁছে অসুস্থ হয়ে পড়েন। তবে নতুন স্ট্রেইনটির বিষয়ে এখনো বিশদে কিছু জানা যায়নি।

গত কয়েকদিনে ব্রাজিল থেকে একাধিক যাত্রী টোকিওতে এসেছেন। তাদের মধ্যে চারজনকে বিমানবন্দরেই আটকানো হয়। সবারই শরীরে করোনা  মিলেছে। বিমানবন্দর থেকেই তাদের আইসোলেশনে পাঠানো হয়। এদের মধ্যে বছর চল্লিশের এক পুরুষ যাত্রীর শ্বাসকষ্ট শুরু হলে গতকাল তাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকি তিনজনকেই এখনো আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। একজনের গলা ব্যথা আছে, অন্য দুইজনের সামান্য জ্বর আছে।

চারজনের করোনা নমুনাই পাঠানো হয়েছিল ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ইনফেকশন ডিসিসে। ওই সংস্থার প্রধান তাকাজি ওয়াকিতা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, করোনার নতুন স্ট্রেইন পাওয়া গিয়েছে ওই যাত্রীদের শরীর থেকে। নতুন স্ট্রেইনটি যুক্তরাজ্যের স্ট্রেইনের থেকে আলাদা। তবে যুক্তরাজ্যের স্ট্রেইনের মতো এই স্ট্রেইনটিও দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে কি না, সে বিষয়ে এখনই জানাতে পারেননি তিনি। পরীক্ষা-নিরিক্ষা চলছে।

নতুন স্ট্রেইনের সন্ধান পাওয়ার পরেই সতর্ক হয়েছে জাপানের প্রশাসন। রাজধানী টোকিওসহ একাধিক শহরে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। প্রয়োজনে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

আগামী গ্রীষ্মে জাপানে অলিম্পিক ও প্যারা-অলিম্পিক হওয়ার কথা। বস্তুত গত বছরেই জাপানে অলিম্পিক হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু প্যানডেমিকের জন্য তা একবছর পিছিয়ে দেয়া হয়। - ডয়চে ভেলে

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh