সৌদির টিকিটের জন্য আজও ভিড় সৌদি প্রবাসীদের

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

সৌদি আরবে ফেরার জন্য ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে টিকিট পাওয়ার আশায় সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের অফিসের সামনে ভিড় করেছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। 

আজ বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকেই কাওরানবাজারে সাউদিয়া ও মতিঝিলে বিমানের বিক্রয় কেন্দ্রের সামনে জড়ো হয়েছেন প্রবাসীরা।  এদিকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে উভয়স্থানেই অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

বৃষ্টি উপেক্ষা করেই সোনারগাঁও হোটেলের সামনে সকাল থেকেই জড়ো হতে থাকেন প্রবাসীরা। তবে প্রবাসীরা যেন রাস্তা অবরোধ না করেন সে বিষয়ে পুলিশের তৎপরতা দেখা গেছে।

আজ সকালে পুলিশের পক্ষ থেকে টিকিট প্রত্যাশীদের উদ্দেশে মাইকে জানানো হয়, আজ ১ থেকে ৫০০ নম্বর টোকেনধারীদের টিকিট দেয়া হবে। শুক্রবার ৫০১ থেকে ৮৫০, শনিবার ৮৫১ থেকে ১২০০, রবিবার ১২০১ থেকে ১৫০০ নম্বর টোকেনধারীদের টিকিট দেয়া হবে। যারা টোকেন পাননি, তাদের ২৯ সেপ্টেম্বর আসতে বলা হয়েছে। 

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স আটকে পড়া সৌদি প্রবাসীদের জন্য দুই বিশেষ  ফ্লাইট পরিচালনা করবে। গতকাল বুধবার বিমান ঘোষণা করে, ১৬ ও ১৭ মার্চের জেদ্দা ও রিয়াদের বিমানের রিটার্ন টিকিটধারী যাত্রীদের জন্য ২৬ সেপ্টেম্বর ঢাকা-জেদ্দা ও ২৭ সেপ্টেম্বর ঢাকা-রিয়াদে যাত্রীবাহী ফ্লাইট পরিচালনা করবে। শুধু ১৬ ও ১৭ মার্চের ফিরতি টিকিটধারী যাত্রীদের এই ফ্লাইটে বুকিংয়ের জন্য বিমান সেলস অফিসে টিকিট, পাসপোর্ট, সৌদি আরবের অনুমোদনসহ প্রয়োজনীয় কাগজসহ আজ বৃহস্পতিবার ( ২৪ সেপ্টেম্বর)  যোগাযোগ করতে হবে। অন্য যাত্রীদের এখনই অযথা কাউন্টারে ভিড় না করতে অনুরোধ করেছে বিমান।

তবে নির্ধারিত তারিখের টিকিটধারী ছাড়াও অন্য তারিখের যাত্রীরা ভিড় করেছেন মতিঝিলে বিমানের বিক্রয় কেন্দ্রের সামনে। সেখানেও যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

ছুটিতে দেশে এসে আটকা পড়েন প্রায় ৮০ হাজার প্রবাসী কর্মী। সাতমাস পর কাজে ফিরে যাওয়ার সুযোগ এলেও ফ্লাইটের অভাবে তৈরি হয় অনিশ্চয়তা। বাধ্য হয়ে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেন প্রবাসীরা। 

টানা তিনদিনের বিক্ষোভের পর গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় জানা যায়, সৌদি কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশ বিমানকে ১ অক্টোবর থেকে সে দেশে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দিয়েছে। একইসাথে প্রবাসী কর্মীদের ইকামা (কাজের বৈধ অনুমতিপত্র) ও ভিসার মেয়াদ নতুন করে ২৪ দিন বাড়িয়েছে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh