‘স্বাভাবিক জীবনে’ ফিরছে ৯ তরুণ-তরুণী

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

এক দম্পত্তিসহ নয় তরুণ-তরুণীর একটি দল আত্মসমর্পণ করতে যাচ্ছেন। তাদের গ্রেফতার না করে পুনর্বাসন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে র‌্যাব।

আজ বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আইজিপির কাছে তারা আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করবে। পরে তাদের পেশার ধরণ অনুযায়ী পুনর্বাসন করা হবে।

র‌্যাব তাদের এই কর্মসূচিকে ‘ডি-র‌্যাডিকালাইজেশন অ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশন প্রোগ্রাম’ বলছে।

র‌্যাব জানায়, আত্মসমর্পণকৃত নয় জঙ্গিকে সন্ত্রাস ও চরমপন্থার জীবন পরিত্যাগ করে সমাজের মূল ধারায় স্বাভাবিক জীবনে নিয়ে আসাই এ কর্মসূচির উদ্দেশ্য। একদল তরুণ-তরুণী শান্তি ও আলোর পথে তথা সমাজের মূলধারায় নিজেদের সমর্পণ করবে। তাদের মধ্যে রয়েছে চিকিৎসক দম্পতি, প্রকৌশলী, শিক্ষার্থীসহ নানা পেশার মানুষ। ডি-র‌্যাডিকালাইজেশন জঙ্গি গোষ্ঠী মধ্যে- জেএমবি, নব্য জেএমবি, আনসার আল ইসলাম ও আনসারউল্লাহ বাংলা টিমের সদস্যরা রয়েছে।

র‌্যাব কর্মকর্তা বলেন, আমরা জঙ্গিদের ধ্বংস করতে পারবো। সামর্থ্য নষ্ট করতে পারবো। কিন্তু তার আদর্শ তো ব্রেনে। সেটা কী করবো? কারো ভেতর যদি ভুল কোনো আইডোলজি থাকে সেটা শুধু যদি বন্দুক দিয়ে মোকাবিলা করা যায় না। এতে আইডোলজি কিন্তু মরবে না। শুধু বন্দুক, অপারেশন এগুলো কাউন্টার টেররিজমের একটা অংশ। সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া নয়। 

তিনি বলেন, সম্প্রতি দুই ধরনের উগ্রপন্থী লক্ষ্য করা যাচ্ছে। কিছু উগ্রপন্থী উগ্র মতবাদে বিশ্বাসী হলেও তারা কোনো সন্ত্রাসী কাজে অংশ নিচ্ছে না। আবার কিছু উগ্রপন্থী সন্ত্রাসী কাজে অংশ নিচ্ছে। উগ্রবাদীদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতে হলে ডি-র‌্যাডিকালাইজেশনের বিকল্প নেই। শুধু আইনের আওতায় এনেই জঙ্গিবাদ নির্মূল করা সম্ভব নয়। কারণ জেল খেটে বের হওয়ার পরও তারা উগ্রপন্থায় জড়িত হতে পারে। জেলের ভেতরও উগ্রপন্থা ছড়িয়ে দিতে পারে। তাই কাউন্সিলিংয়ের মাধ্যমে জঙ্গি বা উগ্রবাদীদের মানসিকতার পরিবর্তন ঘটাতে হবে। নতুন এই উদ্যোগের মাধ্যমে র‌্যাব তাদের (জঙ্গিদের) মানসিকতার পরিবর্তন ঘটাতে পারবে।

র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন্স) কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সারোয়ার গতকাল বুধবার (১৩ জানুয়ারি) এক অনির্ধারিত অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের জানান, ওই নয়জনের মধ্যে দুজন নারী্রি সাতজন পুরুষ। তাদের কাউকে ছয়মাস, কাউকে দুইমাস ধরে অনুসরণ করা হচ্ছে। জঙ্গি সেজেই তাদের সাথে মিশে পরে নজরদারিতে এনে তাদের পথটি যে ভুল, তা তাদের বোঝানো হয়েছে। তাদের আলোর পথে ফিরিয়ে আনার এটা প্রথম ধাপ।

তিনি আরো বলেন, এই নয়জনের মধ্যে একজনের বিরুদ্ধে পুরনো একটি মামলা রয়েছে, বাকিদের বিরুদ্ধে কোনো মামলা নেই।

আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত থাকবেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ, র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) অতিরিক্ত আইজিপি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুনসহ র‌্যাবের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, শিক্ষক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh