একটা ঈদ বাড়িতে না করলে কী হয় : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রত্যেকে যার যার অবস্থানে থেকে ঈদ করুন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রত্যেকে যার যার অবস্থানে থেকে ঈদ করুন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ঈদে বাড়ি যাওয়া থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রত্যেকে যার যার অবস্থানে থেকে ঈদ করুন। একটা ঈদ বাড়িতে না করলে কী হয়? 

তিনি সবাইকে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ জানিয়ে বলেন, করোনার সময় আপনারা একটু মাস্ক পরে থাকবেন, সাবধানে থাকবেন। কারণ আবার নতুন একটা ধরণ এসেছে এটা আরো বেশি ক্ষতিকর। যাকে ধরে সাথে সাথে তার মৃত্যু হয়। সেজন্য আপনি নিজে সুরক্ষিত থাকবেন, অপরকে সুরক্ষা দেন।

আজ রবিবার (৯ মে) সকালে পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্পের অবশিষ্ট মূল অধিবাসী ও সাধারণ ক্ষতিগ্রস্ত সমন্বয়ে মোট ১৪৪০ জনের মধ্যে প্লট বরাদ্দ-পত্র প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনি এ অনুষ্ঠানে যুক্ত হন।

শেখ হাসিনা বলেন, ঈদের সময় মানুষ পাগল হয়ে গ্রামে ছুটছে। কিন্তু আপনারা এই যে একসাথে যাচ্ছেন, এই চলার পথে ফেরিতে হোক, গাড়িতে হোক যেখানে হোক কার যে করোনাভাইরাস আছে, আপনি জানেন না। কিন্তু আপনি সেটা বয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, আপনার পরিবারের কাছে। মা-বাবা, ভাই-বোন, দাদা-দাদি- যেই থাক আপনি কিন্তু তাকেও সংক্রমিত করবেন, তার জীবনটাও মৃত্যুঝুঁকিতে ফেলে দেবেন। তিনি অনুরোধ করে বলেন, বাড়ি যাওয়া থেকে বিরত থাকুন। কেননা যাওয়ার পথে আপনি ভাইরাস বহন করে নিয়ে যেতে পারেন আপনার পরিবারের কাছে। ঈদে নিজের ঘরে থাকতে কি ক্ষতিটা হয়? কাজেই আপনারা ছোটাছুটি না করে যে যেখানেই আছেন সে সেখানে থাকেন। সেখানেই নিজের মতো করে ঈদ উদযাপন করেন।

তিনি আরো বলেন, রমজান মাস, আল্লাহর কাছে দোয়া করেন যেন এই করোনাভাইরাস থেকে যেন আমাদের দেশ মুক্তি পায়, দেশের মানুষ যেন মুক্তি পায় আর যেন প্রাণহানি না হয়।  

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের প্রতিবেশি দেশে প্রতিদিন কত লোক মারা যাচ্ছে এবং এই প্রতিবেশি দেশে যখন হয় স্বাভাবিকভাবে তখন আমাদের দেশে আসার একটা সম্ভাবনা থাকে। সেজন্য আগে থেকেই আমাদেরকে সুরক্ষিত থাকতে হবে। নিজেদেরকে সেভাবে চলতে হবে, যেন আপনারা সবাই করোনাভাইরাস থেকে বেঁচে থাকতে পারেন। সমগ্র দেশবাসীকে বলছি আপনারা একটু ধৈর্য ধরুন। নিজের ভালোর চিন্তা করেন, সাথে সাথে আপনার পরিবারের ভালো চিন্তা করেন।

সরকারপ্রধান বলেন, পূর্বাচল একটি পরিকল্পিত শহর। আমরা শুধু ঢাকা শহরকে কেন্দ্র করে না প্রতিটি বিভাগ ও জেলায়ও এ ধরনের পরিকল্পিত বাড়ি যেন মানুষ করতে পারে, উন্নত জীবন পায়, প্রত্যেকটা গ্রামের মানুষ যেন সুন্দরভাবে বাঁচতে পারে সেই চেষ্টা করে যাচ্ছি, চেষ্টা করে যাবো।

প্লট প্রাপ্তদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনাদের হাতে আপনাদের প্রাপ্য তুলে দিতে পেরেছি এটা আমার জন্য সত্যি আনন্দের। আমরা পরিকল্পনা নিয়েছি একটি মানুষ গৃহহীন থাকবে না। যেটুকু পারি যেভাবে পারি মানুষের জন্য করার সেটা আমরা করে দেব।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh