‘যেখান থেকে পারো টিকা নিয়ে আসো’

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম। ফাইল ছবি

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম। ফাইল ছবি

‘বিশ্বজুড়ে টিকা নিয়ে বড় রাজনীতি আছে, আমরা সেটার বাইরে না’ বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম।

তিনি বলেছেন, ‘সুরক্ষা অ্যাপে টিকার নিবন্ধনে চাপ পড়ছে, ফলে মোবাইলে মেসেজ আসতে একটু দেরি হচ্ছে। অতিদ্রুত এর সমাধান হবে। টিকার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী আমাদের বলেছেন, যেখান থেকে পারো টিকা নিয়ে আসো।’

শনিবার (২৮ জুলাই) সন্ধ্যায় দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক বলেন, ‘করোনা এভাবে আসবে এটা আমরা আগে জানতাম না। পরবর্তী সময়ে আবারও কী হবে এই মুহূর্তে বলা মুশকিল। আমরা আশা করি, করোনার ঢেউ আর আসবে না। তারপরও আমরা প্রস্তুত থাকি। আবারও যদি আসে, আবারও যদি বাড়ে তাহলে আমাদের যে ত্রুটি-বিচ্যুতিগুলো আগে ছিল সেগুলো সারিয়ে নিয়ে করোনা মোকাবিলা করতে পারি।’

তিনি বলেন, ‘কবে, কখন, কোথায়, কী পরিমাণ টিকা আসছে আপনারা দেখতে পেয়েছেন। টিকা পাওয়ার জন্য আমরা সর্বোত্তম প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। প্রধানমন্ত্রী আমাদেরকে খালি চেক দিয়েছেন। বলেছেন, যেখান থেকে পারো টিকা নিয়ে আসো। টাকা যেটা লাগে সেটা আমি দেবো। আমরা চেষ্টা করছি, টিকা আনার জন্য এবং টিকা আসছেও। আপনারা জেনে খুশি হবেন যে, এর মধ্যেই সেপ্টেম্বর, অক্টোবর ও নভেম্বরে আমরা ৬০ লাখ সিনোফার্মের টিকা পাবো। আমরা কোভ্যাক্স থেকেও টিকা পাওয়ার কথা শুনেছি। এর মধ্যে ফাইজারের টিকা ৩১ আগস্ট বেশ কিছু আসার কথা রয়েছে। আপনারা জানেন, বিশ্বজুড়ে টিকা নিয়ে একটি বড় রাজনীতি আছে। আমরা সেটার বাইরে না। আমরা চেষ্টা করছি, যেখান থেকেই পারি টিকা জোগাড় করার। আমরা ইতোমধ্যে টের পেয়েছি যে, টিকাই একমাত্র প্রতিষেধক যেটা দিয়ে আমরা করোনাকে মোকাবিলা করতে পারব।’

তিনি বলেন, ‘নিবন্ধনে অনেকের আগ্রহ ছিল না। এবারের করোনা বেড়ে যাওয়ার পর মানুষের আগ্রহ অনেক বেড়েছে। ফলে অনেক বেশি রেজিস্ট্রেশন হচ্ছে। সেই রেজিস্ট্রেশনের সম্পূর্ণ চাপ সুরক্ষা অ্যাপের ওপর পড়ছে। যার ফলে মোবাইলে মেসেজ আসতে একটু দেরি হচ্ছে, তবে ম্যাসেজ আসবে। অতিদ্রুত এর সমাধান হবে।’

এর আগে মহাপরিচালক দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

এ সময় দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডা. আব্দুল কুদ্দুস, দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. নাদির হোসেন, হাসপাতালের পরিচালক ডা. কাজী শামীম হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, সরকারি হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) চার দিনের সফরে রংপুর বিভাগ পরিদর্শনে আসেন। এই বিভাগের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের হাসপাতালগুলো পরিদর্শন করছেন তিনি। আজ দ্বিতীয় দিনে তিনি দিনাজপুরের হাসপাতাল পরিদর্শন করেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //