মোংলায় মেট্রোরেলের আরো ৪ ইঞ্জিন ও ৮ কোচ

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ঢাকা মেট্রোরেলের আরো চারটি ইঞ্জিন এবং আটটি কোচ মোংলা সমুদ্রবন্দরে পৌঁছেছে। মেট্রোরেলের ইঞ্জিন এবং কোচ নিয়ে থাইল্যান্ডের পতাকাবাহী এমভি এসপিএম ব্যাংকক নামের জাহাজটি শনিবার (২ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে মোংলা বন্দরের ৯নং জেটিতে নোঙ্গর করে। 

জাহাজটি গত ১৪ সেপ্টেম্বর জাপানের কোবে বন্দর থেকে মোংলা বন্দরের উদ্দেশে ছেড়ে আসে। জাহাজটিতে বন্দর কাস্টমস ও এজেন্টের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সম্পন্ন হওয়ার পর শুরু হবে খালাসের কাজ। এতে ইঞ্জিন ও কোচ ছাড়াও ৩২টি প্যাকেজের সরঞ্জাম এসেছে। 

জাহাজ থেকে ইঞ্জিন ও কোচ খালাস করে পরিবহন বার্জে (নৌযানে) রাখা হবে। ওই বার্জে করেই নদীপথে মেট্রোরেলের এই ইঞ্জিন ও কোচ ঢাকার উত্তরার দিয়াবাড়ি ডিপোতে নেয়া হবে। এ নিয়ে পঞ্চম দফায় মেট্রোরেলের ইঞ্জিন, কোচ এবং বিভিন্ন সরঞ্জাম নিয়ে বিদেশি জাহাজ মোংলা বন্দরে ভিড়ে।

বিদেশি জাহাজের স্থানীয় শিপিং এজেন্ট এনসিয়েন্ট স্টিম শিপ কোম্পানি লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার মো. ওহিদুজ্জামান জানান, থাইল্যান্ডের পতাকাবাহী এমভি এসপিএম ব্যাংকক নামের জাহাজটিতে মেট্রোরেলের চারটি ইঞ্জিন, আটটি কোচ এবং ৩২টি প্যাকেজের সরঞ্জাম রয়েছে। জাহাজ থেকে খালাস শেষে নদীপথে ঢাকার উত্তরার দিয়াবাড়ি ডিপোতে পাঠানো হবে।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার কমান্ডার শেখ ফখরউদ্দীন জানান, সর্বপ্রথম ৩১ মার্চ এমভি এসপিএম ব্যাংকক নামে জাহাজে মেট্রোরেলের ছয়টি কোচ মোংলা বন্দরে আসে। এরপর থেকে ধারাবাহিকভাবে মেট্রোরেলের ইঞ্জিন, কোচ এবং বিভিন্ন সরঞ্জামন মোংলা বন্দরে আসছে। গত ৫ মে এমভি ওশান গ্রেস নামে জাহাজে ছয়টি কোচ, ২০ জুলাই এমভি হরিজন-০৯ নামে জাহাজে করে ১০টি কোচ ও দুটি ইঞ্জিন, ১২ সেপ্টেম্বর এমভি প্রেসার্স কোরাল নামের জাহাজ চারটি কোচ ও দুটি ইঞ্জিন নিয়ে মোংলা বন্দরে আসে। সর্বশেষ আজ শনিবার এমভি এসপিএম ব্যাংকক নামের জাহাজে চারটি ইঞ্জিন, আটটি কোচ এবং ৩২টি প্যাকেজের সরঞ্জাম নিয়ে মোংলা বন্দরে ভিড়েছে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //