স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বুলেটিন

ডায়রিয়া রোগী বাড়ছে, অল্পতে চিকিৎসাসেবা নেওয়ার পরামর্শ

গ্রীষ্ম মৌসুম আসার আগেই দেশের বিভিন্ন এলাকায় ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিশেষ করে রাজধানীতে রোগীর সংখ্যা বেড়ে গেছে। 

আজ রবিবার (২৭ মার্চ) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভার্চ্যুয়াল স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ কথা বলেন অধিদপ্তরের পরিচালক (রোগনিয়ন্ত্রণ) অধ্যাপক মো. নাজমুল ইসলাম।

বিশুদ্ধ পানি পান করলে এবং রান্নাসহ বিভিন্ন কাজে সুপেয় পানি ব্যবহার ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে ডায়রিয়া রোধ করা যায় বলে জানান অধ্যাপক নাজমুল। 

তিনি বলেন, অল্প ডায়রিয়া থাকতেই চিকিৎসকের পরামর্শে চিকিৎসাসেবা নেওয়া উচিত। ডায়রিয়াজনিত রোগ একেবারেই চলে যায়নি। আমরা একে মোকাবিলা করতে চাই।

নাজমুল ইসলাম বলেন, চার সপ্তাহ ধরে করোনা সংক্রমণের হার নিম্নগামী। তবে সংক্রমণের হার শূন্যের কোটায় নেমে না আসা পর্যন্ত এবং শতভাগ টিকা শেষ না হওয়া পর্যন্ত আত্মতুষ্টির কোনো সুযোগ নেই। 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গত শুক্রবার সকাল আটটা থেকে গতকাল শনিবার সকাল আটটা পর্যন্ত করোনায় কারও মৃত্যু হয়নি। এ সময় ৭ হাজার ৩৩৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৬৫ জনের।

করোনা পরিস্থিতি তুলে ধরে অধ্যাপক নাজমুল বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের পরিস্থিতি অনেকটা স্থিতিশীল। হাসপাতালে মেডিসিন ও শয্যা- কোনোটিরই সংকট নেই। টেলিমেডিসিন পরিষেবা চালু আছে।

দেশে করোনার টিকাদান পরিস্থিতি নিয়ে নাজমুল ইসলাম বলেন, এ পর্যন্ত ১২ কোটি ৬৮ লাখ মানুষ প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন। দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন ৯ কোটি ৫৪ লাখ ২৪ হাজার ৪১ জন। ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের টিকাদান অব্যাহত আছে। 

তিনি বলেন, এক দিনে কোটি টিকাদান কর্মসূচির আওতায় যেসব ব্যক্তি প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছিলেন, তাদের দ্বিতীয় ২৮ থেকে ৩০ মার্চ দ্বিতীয় ডোজের ক্যাম্পেইন শুরু হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাব বলছে, এখন পর্যন্ত দেশে ১৯ লাখ ৫১ হাজার ২৩৯ জনের শরীরে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৮ লাখ ৭৭ হাজার ১৩১ জন। সুস্থতার হার ৯৬ দশমিক ২। আর আজ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৯ হাজার ১১৮ জন।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //