এবার চট্টগ্রাম থেকে যুক্তরাজ্যে সরাসরি পণ্য পৌঁছাবে

চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ইউরোপের পর এবার যুক্তরাজ্যেও সরাসরি পণ্য পরিবহনসেবা সেবা চালু হচ্ছে। যুক্তরাজ্যের ফ্রেইট ফরোয়ার্ডিং ও শিপিং কোম্পানি অলসিজ গ্লোবাল লজিস্টিকস কোম্পানি এই সেবা চালু করছে। 

আগামী ১৫ মে যুক্তরাজ্যে যাওয়ার জন্য প্রথম জাহাজ ‘এমভি অ্যামো’ চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছাতে পারে। এতে পণ্য আমদানি-রপ্তানিতে সময় যেমন বেঁচে যাবে তেমনি অর্থেরও অনেক সাশ্রয় হবে।

চট্টগ্রাম বন্দর চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ শাহজাহান বলেন, ‘এই ধরণের উদ্যোগকে আমরা স্বাগত জানাই। যুক্তরাজ্যের লিভারপুলসহ কয়েকটি বন্দরে চলাচলের জন্য আমরা তিনটি জাহাজ অনুমোদন দিয়েছি। নতুন রুটে জাহাজ চলাচলের জন্য কোনো প্রতিষ্ঠান আবেদন করলে আমরা তাৎক্ষণিক অনুমোদন দিচ্ছি। এতে পণ্য আমদানি-রপ্তানিতে সময় ও অর্থ সাশ্রয় হবে।’

নতুন এই সেবার আওতায় চট্টগ্রাম থেকে রপ্তানি পণ্যবাহী কনটেইনার নিয়ে জাহাজ সুয়েজ খাল হয়ে প্রথমে নেদারল্যান্ডসের রটারড্যাম বন্দরে যাবে। সেখানে রপ্তানি পণ্য খালাস করে যুক্তরাজ্যের লিভারপুল বন্দরে পৌঁছাবে জাহাজটি। একইভাবে আমদানি পণ্যবাহী কনটেইনার নিয়ে চট্টগ্রামে ফিরবে।

অলসিজ গ্লোবাল লজিস্টিকস কোম্পানির জাহাজের স্থানীয় প্রতিনিধি ফিনিক্স শিপিং লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন সৈয়দ সোহেল হাসনাত বলেন, নতুন সেবায় চট্টগ্রাম থেকে ২৩ দিনের মধ্যে যুক্তরাজ্যে পণ্য পৌঁছানো সম্ভব। এখন ঘুরে সিঙ্গাপুর ও কলম্বো বন্দর হয়ে যুক্তরাজ্যে যেতে ৩৫-৪০ দিনের মতো সময় লাগছে।

অলসিজ গ্লোবাল লজিস্টিকস কোম্পানির এই সেবায় তিনটি জাহাজ পণ্য আমদানি-রপ্তানিতে যুক্ত থাকবে। এর মধ্যে এমভি অ্যামো জাহাজের কন্টেইনার ধারণক্ষমতা এক হাজার ৭৩০ টিইইউস। এমভি বিবিসি ফিনল্যান্ড জাহাজটির ধারণক্ষমতা এক হাজার ৫০০ টিইইউস। এমভি স্যান আলফনসো জাহাজের ধারণক্ষমতা এক হাজার ৮১৯ টিইউএস।

বাংলাদেশ শিপিং এজেন্টস এসোসিয়েশেনের চেয়ারম্যান সৈয়দ মোহাম্মদ আরিফ বলেন, ‘এটি বাংলাদেশের অর্থনীতির জন্য খুবই ইতিবাচক সংবাদ। সরাসরি রুটে পণ্য পরিবহন বাড়লে শিপিং কোম্পানিগুলোর মধ্যে প্রতিযোগিতা বাড়বে। ফ্রেইট চার্জ কমে আসবে। কমবে ব্যবসার খরচ।’

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //